বুধবার, ১৬ Jun ২০২১, ০৩:২৬ পূর্বাহ্ন

সাকিব আল হাসানের মহমেডান স্পোর্টিং ক্লাবের অনুশীলনে জৈব সুরক্ষা বলয় ভাঙার গুরুতর অভিযোগ উঠল। স্বভাবতই এই বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত করছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) ও ক্রিকেট কমিটি অব ঢাকা মেট্রোপলিস (সিসিডিএম)। ইতিমধ্যেই তদন্ত শুরুর করে দোষীদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছেন সিসিডিএমের চেয়ারম্যান কাজী ইনাম আহমেদ।

তিনি বলেছেন, “ঘটনাটি জানতে পেরে আমরা হতাশ হয়েছি। সিসিডিএম ও বিসিবি বিষয়টিকে অত্যন্ত গুরুত্বের সঙ্গে দেখছে। প্রতিটি দল, ক্রিকেটার ও দলের বাকিদের স্বাস্থ্য এবং সুরক্ষা আমাদের কাছে সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। সেই জন্য আমরা প্রচুর অর্থ বিনিয়োগ করেছি। তাই যিনি বা যাঁরা এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন, তাঁদের কঠিন শাস্তি দেওয়া হবে।”

শনিবার এক বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে মহমেডানের জৈব সুরক্ষা বলয় ভাঙার কথা জানিয়েছিল বিসিবি। তবে এই ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টি-টোয়েন্টিতে প্রাইম ব্যাঙ্ক ক্রিকেট ক্লাবের মুখোমুখি হওয়ার আগে অনুশীলন করছিল সাদা-কালো শিবির। মিরপুরের শের-ই-বাংলা স্টেডিয়ামের ইনডোরে শাকিব ব্যাটিং অনুশীলন করছিলেন। ঠিক সেই সময় বলয় ভেদ করে বাইরের এক ব্যক্তি সাকিবের দলের অনুশীলন দেখার জন্য ইনডোরে ঢুকে পড়েন। নিরাপত্তারক্ষীরা সেই ব্যক্তিকে বাইরে বের করে দিলেও বলয়ের পরোয়া না করে বাইরের লোকজন কী ভাবে ইনডোরে ঢুকে পড়লেন সেই প্রশ্ন উঠছে।

আরও পড়ুন