মঙ্গলবার, ১৫ Jun ২০২১, ০৬:৩১ অপরাহ্ন

কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলায় রোববার বিয়ের পর মঙ্গলবার বোনজামাইকে দিয়ে নববধূকে ধ’র্ষ’ণ করিয়েছে স্বামী। এই ঘটনায় স্বামীকে গ্রেফতার করেছে কচাকাটা থানা পুলিশ। পরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

মঙ্গলবার ঘটনাটি ঘটেছে নাগেশ্বরী উপজেলার কচাকাটা থানার বল্লভের খাস ইউনিয়নে।

ভুক্তভোগী নববধূ এবং পুলিশ সূত্রে জানা যায়, রোববার কেদার ইউনিয়নের শিপেরহাট গ্রামের ১৮ বছর বয়সী যুবকের সঙ্গে ওই তরুণীর বিয়ে হয়। সোমবার সন্ধ্যায় ওই নববধূ স্বামীর ভগিনীপতি বাবার বাড়িতে বেড়াতে আসেন। মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে ওই তরুণী তার স্বামী, স্বামীর ভগিনীপতিসহ পাশে চাচার বাড়িতে বেড়াতে যায়। এ সময় চাচার বাড়ি ফাঁকা পেয়ে স্বামীর সহযোগিতায় ওই নববধূকে ধ’র্ষ’ণ করে ভগিনীপতি।

ঘটনাটি ওই তরুণী তার পরিবারের কাছে জানান। পরে তার বড় ভাই বুধবার সকালে কচাকাটা থানায় একটি অভিযোগ করেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে নববধূকে উদ্ধার এবং তার স্বামীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকেই ভগিনীপতিকে খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

কচাকাটা থানার ওসি মাহাবুব আলম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ভিকটিমকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য বৃহস্পতিবার সকালে জেলা সদরের জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃত আব্দুল হাকিমকে আদালতের মাধ্যমে কুড়িগ্রাম জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। পলাতক আসামি বাবুকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন