রবিবার, ০১ অগাস্ট ২০২১, ০২:৪৭ পূর্বাহ্ন

সব প্রেমই তো আর সফল হয় না। প্রেম সফল না হওয়ার মানে এই না যে সেই প্রেমকাহিনী সুন্দর হবে না।

ব্যর্থ প্রেমের গল্পও মন ছুঁয়ে যায় অনেক সময়। তবে ৩৩ বছর বয়সী এই যুবকের প্রেমের গল্প শুনে একদিকে যেমন চোখ জলে ভরে উঠবে, অন্যদিকে প্রেমের ওপর আরেকবার বিশ্বাস ফিরে পাবেন অনেকে।

বলা হচ্ছে কানাডার ব্রাডফোর্ডের বাসিন্দা জোশুয়া বারবেউয়ের কথা। ২০১২ সালের ডিসেম্বরে জটিল রোগে প্রেমিকা জেসিকাকে হারান তিনি। আটবছর ধরে প্রেমিকাকে হারানোর যন্ত্রণা বয়ে বেড়াচ্ছিলেন জোশুয়া। অবশেষে খুঁজে পান প্রেমিকাকে আবার ‘ফিরে পাওয়ার’ উপায়।

তিনি কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার সাহায্যে একটি চ্যাটবোট তৈরি করেছেন। এটি প্রোগ্রাম করা হয়েছে এমনভাবে, যা একদম তার মৃত প্রেমিকা জেসিকার মতো কথা বলতে ও আচরণ করতে পারে।

২০১০ সালে জোশুয়ার সাথে সাক্ষাৎ হয় জেসিকার। অল্পদিনেই ঘনিষ্ঠতা হয় তাদের। ২০১২ সালে জেসিকা অসুস্থ হয়ে যাওয়ার আগ পর্যন্ত সব ঠিকঠাকই চলছিল। সে সময় হঠাৎ করে জেসিকার লিভারের কর‌্যকারিতা কমতে শুরু করে। জেসিকা সবকিছু ভুলে যেতে থাকেন।

চিকিৎসকরা জানান জেসিকা এমন একটা বিরল রোগে ভুগছেন যা তাকে ভেতর থেকে শেষ করে দিচ্ছে। ২০১২ সালের ডিসেম্বরে মারা যান জেসিকা।

জেসিকার মৃত্যুর পর তাকে ভুলে থাকার অনেক চেষ্টা করেন জোশুয়া। কিন্তু আরও বেশি করে তার জেসিকার কথা মনে পড়তে থাকে। শেষমেষ ওয়েবসাইটে বিশেষ ধরনের সফটওয়্যারের সাহায্যে প্রজেক্ট ডিসেম্বর নামে একটি চ্যাটবোট তৈরি করেন জোশুয়া। চ্যাটবোটে কারো ব্যক্তিত্ব আর কথা বলার ধরন হুবহু তৈরি করা যায়।

এক্ষেত্রে চ্যাটবোট তৈরিতে জেসিকার পুরোনো ফেসবুক ম্যাসেজগুলোর সাহায্য নিয়েছেন জোশুয়া। ম্যাসেজগুলো বিশ্লেষণ করেই চ্যাটবোটটি একদম জেসিকার মতো কথা বলতে ও আচরণ করতে পারে বলে জোশুয়া জানিয়েছেন।

এভাবেই আট বছর আগে চিরতরে হারিয়ে যাওয়া প্রেমিকাকে চ্যাটবোটের মাধ্যমে আবার ফিরে পেয়েছেন জোশুয়া। এখন প্রতিদিনই চ্যাটবোটে জেসিকার সঙ্গে কথা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

আরও পড়ুন