সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৮:৩৩ অপরাহ্ন

বাংলাদেশ রেলওয়ের অব্যবস্থাপনা নিয়ে আন্দোলনকারী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনি ফের কমলাপুর রেলস্টেশনে অবস্থান নিয়েছেন। তবে এবার রনির সঙ্গে তার সহপাঠী, বন্ধুসহ অন্যান্য শিক্ষার্থীরাও আন্দোলনে যোগ দিয়েছেন। তারা স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে অবস্থান নিয়ে বিক্ষোভ করছেন। বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে দুই হাত প্রতীকী শিকলে বেঁধে কমলাপুরে যান রনি। এ সময় তার গলায় ঝুলানো ছিল রেলের অনিয়ম-দুর্নী’তি নিয়ে লেখা বোর্ড।

এর আগে রেলের অনিয়ম-দুর্নীতি বন্ধে ৬ দফা দাবি বাস্তবায়নে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেয় রনি। আল্টিমেটাম শেষে আবারও এই আন্দোলন শুরু হয়। আন্দোলনে রনির সঙ্গে তার সহপাঠী ও বন্ধুরা যোগ দিয়েছেন।

এ সময় গণমাধ্যমকে রনি জানান, ৬ দফা দাবি মানতে রেলওয়েকে ৪৮ ঘণ্টার আল্টিমেটাম দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু অব্যবস্থাপনা বন্ধে তারা এখনও কোনো পদক্ষেপ নেননি। তাই আজ একই দাবি আদায়ে কমলাপুর রেলস্টেশনে অবস্থান নিয়েছি।আমার সঙ্গে সহপাঠী ও বন্ধুরাও অংশ নিয়েছেন।

তিনি আরও বলেন, রেলের অব্যবস্থাপনা বন্ধে ১৩ দিন কমলাপুর স্টেশনে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছি। স্মারকলিপি দিয়েছি।বন্ধু-বান্ধবসহ একদল শিক্ষার্থীকে নিয়ে লংমার্চ করেছি। কিন্তু অব্যবস্থাপনা প্রতিরোধে রেলওয়ের কোনো পরিবর্তন দেখছি না। এই দাবিগুলো দেশের ১৮ কোটি মানুষের। দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চালিয়ে যাবেন বলে ঘোষণা দেন রনি।

রনির ৬ দফা দাবি হলো-

১. টিকিট ক্রয়ের ক্ষেত্রে সহজ ডটকম কর্তৃক যাত্রী হয়রানি অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে। হয়রানির ঘটনায় তদন্তপূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

২. যথোপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণের মাধ্যমে টিকিট কালোবাজারি প্রতিরোধ করতে হবে।

৩. অনলাইনে কোটায় টিকিট ব্লক করা বা বুক করা বন্ধ করতে হবে। সেইসঙ্গে অনলাইন-অফলাইনে টিকিট ক্রয়ের ক্ষেত্রে সর্বসাধারণের সমান সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করতে হবে।

৪. যাত্রী চাহিদার সঙ্গে সঙ্গতি রেখে ট্রেনের সংখ্যা বৃদ্ধিসহ রেলের অবকাঠামো উন্নয়নে দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা গ্রহণ করতে হবে।

৫. ট্রেনের টিকিট পরীক্ষক ও তত্ত্বাবধায়কসহ অন্যান্য দায়িত্বশীলদের কর্মকাণ্ড সার্বক্ষণিক মনিটর, শক্তিশালী তথ্য সরবরাহ ব্যবস্থা গড়ে তোলার মাধ্যমে রেলসেবার মান বৃদ্ধি করতে হবে।

৬. ট্রেনে ন্যায্য দামে খাবার বিক্রি, বিনামূল্যে বিশুদ্ধ পানি সরবরাহ ও স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশন ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে হবে।

উল্লেখ্য, রেলওয়ের অব্যবস্থাপনা দূর করার দাবি-সংবলিত প্ল্যাকার্ড হাতে কমলাপুর স্টেশনে ৭ জুলাই থেকে অবস্থান করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনি।

আরও পড়ুন