বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ১০:২৮ অপরাহ্ন

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বলেছেন, দেশে মোট ডিজেলের মাত্র ১০ শতাংশ বিদ্যুৎ উৎপাদনে ব্যবহার হয়। বাকি ৯০ শতাংশ সেচ ও পরিবহনখাতে ব্যবহার হয়ে থাকে। আজ শুক্রবার (২২ জুলাই) সকালে বারিধারায় বাসভবন থেকে বিদ্যুৎ, লোডশেডিং ও জ্বালানি ইস্যুতে ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানান তিনি।

কম দামে জ্বালানির বাজার খোঁজা হচ্ছে জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, দিনে দেড় হাজার থেকে দুই হাজার মেগাওয়াটের মতো লোডশেডিং চলছে। এ পরিস্থিতি সাময়িক। গ্রাহকরাও এটাকে বিশেষ পরিস্থিতি মেনে নিচ্ছেন। এক সপ্তাহ, ১০ দিন পরিস্থিতি পর্যালোচনা করব। আগামী সপ্তাহে নতুন পরিকল্পনা করা হবে।

প্রতিমন্ত্রী জানান, বর্তমানে আমাদের ১৫ হাজার মেগাওয়াট সক্ষমতা আছে। পিকআওয়ারে চাহিদা ১৪ হাজার মেগাওয়াট। কূটনৈতিক এলাকা বাদে সব জায়গায় লোডশেডিং হবে। সপ্তাহখানেক পর্যবেক্ষণ করে লোডশেডিংয়ের বিষয়ে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

আরও পড়ুন