বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ১০:২৩ অপরাহ্ন

দ্বিতীয়বারের মতো বিয়ের পিঁড়িতে বসেছেন চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা।প্রায় দুই মাস আগেই পারিবারিকভাবে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন তিনি। তবে এতদিন সেই খবর গোপনই ছিল। যদিও গত বৃহস্পতিবার তা জানাজানি হয়। এছাড়া পূর্ণিমার আগের স্বামী আহমেদ ফাহাদ জামালের সঙ্গে বিচ্ছেদের গুঞ্জন শোনা গেলেও ডিভোর্সের বিষয়ে কোনো তথ্যই এতদিন আসেনি গণমাধ্যমে।

এর আগে গত ২৭ মে পূর্ণিমা ও রবিনের দুই পরিবারের সম্মতিতে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন হয়। তার বর্তমান স্বামী আশফাকুর রহমান রবিন পেশায় একটি বহুজাতিক কোম্পানির মার্কেটিং বিভাগের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা। লেখাপড়া করেছেন সিডনির একটি বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে। সেখান থেকে উচ্চতর ডিগ্রি নিয়েছেন। প্রায় দুই মাস আগে বিয়ে হলেও এতদিন পুরো বিষয়টি আড়ালে রেখেছিলেন পূর্ণিমা। কিন্তু কেন এতদিন তা আড়ালে রেখেছিলেন তা জানিয়েছেন পূর্ণিমা।

পূর্ণিমা বলেন, ‘ফাহাদের সঙ্গে আমার সম্পর্ক নেই প্রায় তিন বছর। যেহেতু আমার একটি মেয়ে আছে। মেয়ের বাবা সে। মেয়েটা স্কুলে পড়ে। সব বিবেচনা করে আমরা বিষয়টি জানাতে চাইনি। তাছাড়া বিয়ের পরেই তিনিসহ পরিবারের অন্যরা অসুস্থ ছিলেন। কেউ কেউ করোনায় আক্রান্ত ছিলেন। এজন্য বিয়ের খবর জানাতে দেরি হয়েছে।

প্রসঙ্গত, ২০০৭ সালের ৪ নভেম্বর পারিবারিকভাবে আহমেদ জামাল ফাহাদের সঙ্গে প্রথম বিয়ে হয় পূর্ণিমার। ২০১৪ সালের ১৩ এপ্রিল তিনি প্রথম কন্যাসন্তানের মা হন। তার মেয়ের নাম আরশিয়া উমাইজা।

আরও পড়ুন