শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০৩:৩২ পূর্বাহ্ন

সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলায় বিয়ের রাতেই মাকসুদুর রহমান জিমাম নামে এক যুবকের ম’রদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। জিমাম সুনামগঞ্জ পৌর শহরের আরপিন নগরের বাসিন্দা মো.মজিবুর রহমানের ছেলে। শুক্রবার (২২ জুলাই) দিবাগত রাতে উপজেলার পান্ডারগাঁও ইউনিয়নের পলিরচর গ্রামে পুকুরে গোসল করতে গিয়ে পানিতে ডুবে ওই যুবক বিয়ের রাতেই মা’রা গেছেন। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন স্থানীয় ইউপি সদস্য ছমির আলী।

পুলিশ জানায়, নিহত মাকসুদুর রহমান জিমাম গত বৃহস্পতিবার (২১ জুলাই) নিজ বাড়ি থেকে পালিয়ে গিয়ে জেলার ছাতক উপজেলার বাতিরকান্দি গ্রামের এক মেয়েকে বিয়ে করেন। তাদের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। জিমাম স্ত্রীকে নিয়ে শুক্রবার (২২ জুলাই) দোয়ারাবাজার উপজেলার পান্ডারগাঁও ইউনিয়নের পলিরচর গ্রামের আকবর আলীর বাড়িতে রাত্রিযাপনের জন্য আশ্রয় নেন। শুক্রবার তার বাসর রাত ছিল। রাতে পুকুরে গোসল করতে গিয়ে তলিয়ে যান জিমাম। তিনি সাঁতার জানতেন না।

দোয়ারাবাজার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেবদুলাল ধর বলেন, ম’রদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ম’র্গে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনাটি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

স্থানীয়দের বরাত দিয়ে ওসি বলেন, শুনেছি ভালোবেসে তারা বিয়ে করেছিলেন। শুনেছি গোসল শেষে পুকুর ঘাটে উঠার সময় হো্চট খেয়ে পানিতে পরে গেলে সাতার না জানায় তলিয়ে যান জিমাম। এমন একটি ঘটনা দুঃখের।

আরও পড়ুন