সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৭:৪৮ অপরাহ্ন

সম্প্রতি বিয়ে বহির্ভূত সম্পর্কের অভিযোগ এনে ভারতের ওড়িশা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির জনপ্রিয় অভিনেত্রী প্রকৃতি মিশ্রকে হে’নস্তা করলেন তারই সহ-অভিনেতার স্ত্রী!ভুবনেশ্বরের রাস্তায় সহকর্মী বাবুশান মোহান্তির স্ত্রী তৃপ্তি শতপথি ক্ষে’পে গিয়ে প্রকৃতিকে চু’লের মু’ঠি ধরে মা’রধর করেছেন। সে সময়কার একটি ভিডিও এরই মধ্যে সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া এই ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, প্রকৃতিকে গাড়ির মধ্যে চুলের মুটি ধরে আ’ক্রমণ করছেন বাবুশানের স্ত্রী।ওই গাড়িতে ড্রাইভারের সিটে ছিলেন অভিনেতা বাবুশান। অভিনেত্রীকে রীতিমতো ছ’টপ’ট করতে দেখা যায়। অন্যদিকে পথচারীরা সাহায্য করবার বদলে ভিডিও তুলতে ব্যস্ত!

এরপর কোনোভাবে গাড়ি থেকে নেমে একটি অটোরিক্সার দিকে ছুটে যান প্রকৃতি, সেইসময়ও তৃপ্তি তাকে ধাওয়া করেন। এই ঘটনার জে’রে খারাভেলা নগর থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন প্রকৃতির মা, কৃষ্ণাপ্রিয়া মিশ্রা। নিজের সঙ্গে ঘটা এই ভ’য়ঙ্ক’র ঘটনা এবং পরকী’য়ার অভিযোগ নিয়ে মুখ খুললেন নায়িকা।

ইনস্টাগ্রাম পোস্টে তিনি লেখেন, ‘প্রত্যেকটা গল্পের দুটো দিক থাকে। দু’র্ভাগ্যবশত, আমরা এমন সমাজে থাকি, যেখানে একটা মেয়ের কথা শোনবার আগেই তাকে দো’ষী বলে ঘোষণা করা হয়। আমি এবং আমার সহ-অভিনেতা বাবুশান একসঙ্গে চেন্নাই যাচ্ছিলাম। উৎকল অ্যাসোশিয়েশনের একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার আমন্ত্রণ ছিল আমাদের কাছে। আচমকাই বাবুশানের বউ কিছু গু’ন্ডা নিয়ে হাজির হয়, এবং অভিনেতাকে বিভিন্ন প্রশ্নে জর্জরিত করে, এরপর আমাকে শা’রীরিক ও মা’নসিকভাবে হে’নস্থা করা হয়।’ এমন আ’চরণ তিনি সহ্য করবেন না প্রকৃতি এবং উপযুক্ত ব্যবস্থা নেবেন সেকথাও বলেন তিনি।

প্রকৃতি জানান এই ঘটনা তাঁকে নাড়িয়ে দিলেও তিনি ভেঙে পড়বেন না। নারীর ক্ষমতায়নের প্রকৃত অর্থ ব্যাখ্যা করে তিনি বলেন, এগিয়ে চলার পথে অবিচল তিনি। এরপর এক ট্রোলার কটাক্ষ করে কমেন্ট বক্স লেখে, ‘নারীর ক্ষমতায়ন মানে অন্যের বরকে চুরি করা নয়’। জবাবে অভিনেত্রী লেখেন, ‘যদি তোমার মাথায় একটু বুদ্ধি থাকত….তাহলে যা ঘটেছে সেটা দেখে বিষয়টা বোঝবার চেষ্টা করতে। এত তাড়াতাড়ি কাউকে বিচার করা উচিত নয়’।

প্রকৃতির সুরে সুর মিলিয়ে অভিনেতা বাবুশান বলেছেন, তাঁরা কেবলমাত্র সহ-অভিনেতা। একসঙ্গে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাচ্ছিল। আগামিতে দুজনকে একসঙ্গে একটা ছবিতেও দেখা যাওয়ার কথা ছিল। তবে বাবুশান সাফ জানান, তাঁর স্ত্রীর আ’পত্তি থাকলে সেই ছবি থেকে বেরিয়ে আসবেন তিনি। ভবিষ্যতে প্রকৃতির সঙ্গে আর কোনও প্রোজেক্ট করবেন না, তেমনটাও জানিয়েছেন বাবুশান মোহান্তি।

আরও পড়ুন