বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ০২:৫৩ অপরাহ্ন

পরীক্ষার প্রস্তুতির কারণে গেস্টরুমে না যাওয়ায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের এক ছাত্রকে মা’রধর করার অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের এক কর্মীর বিরুদ্ধে। ভুক্তভোগী ছাত্র জানায়, রবিবার রাতে পরীক্ষার প্রস্তুতির কারণে গেস্টরুমে না যাওয়ায় পরে তাকে ‘পলিটিক্যাল রুমে’ ডেকে নিয়ে শা’রীরিক ও মা’নসিক নি’র্যাতন করে ঐ হলের ছাত্রলীগের তিন কর্মী।

অভিযুক্ত ছাত্রলীগ কর্মীরা হলেন ইয়াসির আরাফাত প্লাবন, ইয়াসিন আল শাহীন, আল ইমরান। তারা সকলেই সলিমুল্লাহ মুসলিম হল ছাত্রলীগের সক্রিয়কর্মী এবং হল ছাত্রলীগের সভাপতি তানভীর সিকদারের অনুসারী৷ ভুক্তভোগী শিপন মিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্য বিজ্ঞান ও গ্রন্থাগার ব্যবস্থাপনা বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী।

নি’র্যাতনের বিষয়ে হল কর্তৃপক্ষের কাছে লিখিত অভিযোগপত্র দিয়েছে বলে জানান ভুক্তভোগী শিপন মিয়া। বর্তমানে তিনি অভি’যুক্তদের দ্বারা ঝা’মেলা হওয়ার আশ’ঙ্কায় হলের বা’হিরে অবস্থান করছেন।

নির্যা’তনের বিষয়ে শিপন মিয়া বলেন, বিভাগের পরীক্ষার জন্য ছাত্রলীগের কর্মসূচিতে অংশ নিতে পারিনি৷ এজন্য আমাকে রাতে ছাত্রলীগের পলিটিক্যাল রুমে যেতে কয়েকবার ফোন দেন বড় ভাইয়েরা৷ কিন্তু পরীক্ষার প্রস্তুতির কারণে তাদের ফোন ধরতে পারিনি৷ পরে আমাকে খুঁজে ধরে নিয়ে যেতে ইয়াসিন আল শাহিনের নেতৃত্বে কয়েকজনকে পাঠানো হয়৷ তারা আমাকে হলের ১৭৭ নাম্বার রুমে (পলিটিক্যাল রুম) ডেকে নিয়ে যায়৷ সেখানে গেলে শাহীন আমার হাত থেকে ফোন কেড়ে নেন৷

কেন ফোন ধরিনি তা জানতে চান৷ আমাকে গা’লিগা’লাজ করেন৷ এক পর্যায়ে প্লাবন আমার গালে চ’ড় মারেন৷ চড় মা’রায় ভ’য়ে আমি মাটিতে পরে যাই। তখন ইয়াসিন একজনকে স্টাম্প আনতে বলে এবং আমায় মাটি থেকে কলার ধরে তুলে স্টাম্প দিয়ে আঘাত করে। আমি পুনরায় মাটিতে পরে যাই তখন ইমরান আমার গ’লা চেপে ধরে আমাকে শ্বা’সরোধ করার চেষ্টা করে এবং আমাকে মে’রে ফে’লার হু’মকি দেয়।

অভিযোগের বিষয়ে অভিযুক্ত ইয়াসিন আল শাহীন, আল ইমরানের সাথে কথা হলে তারা জানায়, এ অভিযোগ সম্পূর্ণ মি’থ্যা৷ তারা কেউই এর সাথে জড়িত নয়। হলে এরকম কোনো ঘটনা ঘটেও নি। আরেক অ’ভিযুক্ত ইয়াসির আরাফাত প্লাবনের সাথে মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও তা সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে সলিমুল্লাহ মুসলিম হলের ভারপ্রাপ্ত প্রাদ্যক্ষ ড. মুহাম্মদ বেলাল হুসাইন কালের কণ্ঠকে বলেন, ভুক্তভোগীর অভিযোগ আমি গ্রহণ করেছি। এনিয়ে কাল সকাল দশটায় জরুরি মিটিং ডেকেছি। সেখানে আমরা কথা অভিযোগের বিষয়ে তদন্ত কমিটি গঠন করব।

আরও পড়ুন