সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০২:৪০ পূর্বাহ্ন

সিলেট শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্বিবদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থী বুলবুল আহমেদের মৃ’ত্যুতে তার নরসিংদীর বাড়িতে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। মাত্র ৮ মাস আগেই মা’রা যান বুলবুলের বাবা ওহাব মিয়া। অল্প সময়ের ব্যবধানে পরিবারের দু’জনকে হারানোর শোক মেনে নিতে পারছেন না স্বজনরা।

সোমবার (২৬ জুলাই) রাতে ফোনে পরিবারকে বুলবুলের মৃ’ত্যুর সংবাদ জানায় তার এক সহপাঠী। এ খবরে কা’ন্নার রোল পড়ে যায় বুলবুলের নন্দীপাড়া গ্রামের বাড়িতে। ৪ ভাই-বোনের মধ্যে সবার ছোট ছিলেন বুলবুল।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) সন্ধ্যায় ম’রদেহ বাড়িতে পৌঁছাতে পারে বলে জানিয়েছেন তারা। এরপর পৈতৃক ভিটা মাধবদীর নোয়াকান্দি গ্রামে জানাজা শেষে তাকে দাফন করা হবে।

এদিকে, বুলবুলকে হ’ত্যার ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৩ বহিরাগতকে আ’টক করেছে পুলিশ। তবে তাদের সম্পর্কে বিস্তারিত কিছু জানানো হয়নি। এ ঘটনায় জালালাবাদ থানায় মামলা করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার ইশফাকুল হোসেন। এরই মধ্যে তদন্তে নেমেছে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনী।

তার মৃ’ত্যুর প্রতিবাদে উত্তাল শাবিপ্রবি ক্যাম্পাস। জড়িতদের গ্রে’ফতার ও বিচারের দাবিতে মানববন্ধন, বিক্ষোভসহ নানা কর্মসূচি পালন করছেন শিক্ষার্থীরা। হ’ত্যাকারীদের দ্রুত চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনা ও সর্বোচ্চ সাজার দাবি জানান তারা। একই সাথে নিরাপদ ক্যাম্পাসের দাবি জানান শিক্ষার্থীরা।

লোকপ্রশাসন বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী বুলবুল আহমেদ গতরাতে ক্যাম্পাসের গাজিকালুর টিলা এলাকায় দু’র্বৃত্ত’দের ছু’রিকাঘাতে নি’হত হন। এ ঘটনায় অজ্ঞা’তনামাদের আসামি করে মা’মলা করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ। সিলেট ওসমানী মেডিকেলে আজ দুপুরে বুলবুলের মর’দেহের ময়নাতদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

আরও পড়ুন