মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৬:৫২ পূর্বাহ্ন

পরিবারের অমতে বিয়ে করায় মেয়ে-জামাইকে কু’পিয়ে হ’ত্যা করলেন বাবা। এ ঘটনায় অভিযুক্ত ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের তামিলনাড়ুর তুতিকোরিন এলাকায়। খবর ইন্ডিয়া এক্সপ্রেসের।

পুলিশ জানিয়েছে, পরিবারের অমতে বিয়ে করায় এই হ’ত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। কয়েকদিন আগেই তাদের বিয়ে হয়েছে। কিন্তু এই বিয়েতে ওই তরুণীর বাবা খুশি ছিলেন না। তার মতের বিরুদ্ধে বিয়ে করায় নিজের মেয়ে এবং জামাইকে হ’ত্যা করেছেন তিনি।

খবরে বলা হয়, ওই তরুণী পালিয়ে বিয়ে করার পর তার পরিবার তাকে নি’খোঁজ দেখিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের করে। পরবর্তীতে মাদুরাই থানায় ওই দম্পতি হাজির হয়ে জানান যে, তারা প্রাপ্তবয়স্ক এবং নিজেদের ইচ্ছায় বিয়ে করেছেন।

বালাজি সারাভানন নামে পুলিশের এক শীর্ষ কর্মকর্তা বলেন, থানা থেকে ভিডিও কলে বাবার সঙ্গে কথা বলেন তরুণী ও তার স্বামী। ওরা পুলিশি নিরাপত্তা চাননি।

ওই দম্পতি একটি বাসা ভাড়া করে থাকতে শুরু করেছিলেন। সেখানেই তাদের হ’ত্যা করা হয়েছে বলে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়। মেয়ে এবং জামাইকে হ’ত্যার পর পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেন ওই তরুণীর বাবা।

আত্মীয়র মধ্যেই বিয়ে করেছিলেন ওই তরুণী। সে কলেজ শিক্ষার্থী ছিল। কিন্তু তার স্বামী স্কুলের পাঠ শেষ করার পর আর পড়াশোনা করেননি। এটাই ওই তরুণীর পরিবার মেনে নিতে পারেনি। পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনার তদন্ত চলছে।

আরও পড়ুন