বৃহস্পতিবার, ১৮ অগাস্ট ২০২২, ০২:৫৬ অপরাহ্ন

সকালে ঘুম থেকে উঠেই চা খাওয়ার অভ্যাস আছে অনেকের। অনেক সময় খালি পেটেই এক কাপ চা পান করেন এমন মানুষের সংখ্যাও কম নয়। তবে খালি পেটে চা পানের এই অভ্যাস অনেক ক্ষেত্রেই গুরুতর স্বাস্থ্যঝুঁকির কারণ হতে পারে।

ভারতের স্বাস্থ্য বিষয়ক ওয়েবসাইট ‘দ্য হেলথ সাইট’ এনিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। সেখানে বলা হয়েছে, চায়ে থিয়োলিন নামের একটি যৌগ থাকে। এই যৌগ শরীরে পানির পরিমাণ হ্রাস করে। ঘুমন্ত অবস্থায় শরীরে পানির পরিমাণ স্বাভাবিকভাবেই হ্রাস পায়। ঘুম থেকে উঠেই খালি পেটে চা বা কফি খেলে সেই পরিমাণ আরও কমে যায়। তাই চা খাওয়ার আগে অল্প কিছু খাবার বা কয়েকটি বিস্কুট খেয়ে নিলে এই থিয়োফিলিন কিছুটা দুর্বল হয়ে পড়ে। তাতে শরীরে পানির পরিমাণ ঠিক থাকে।

শুধু ঘুম থেকে উঠেই নয়, অনেকের ঘুমাতে যাওয়ার আগেও চা-কফি খাওয়ার অভ্যাস আছে। এটিও স্বাস্থ্যের পক্ষে ক্ষতিকর। এর ফলে ঘুমের ব্যাঘাত ঘটার পাশাপাশি অন্যান্য শারীরিক জটিলতাও তৈরি হতে পারে।

এছাড়া চায়ে ক্যাফিন নামক আরও একটি যৌগ আছে। খালি পেটে এই যৌগ পাকস্থলীতে প্রবেশ করলে অম্লের পরিমাণ বাড়তে পারে। এর ফলে অনেক সময়ে আকস্মিক বমি বমি ভাব, বুক জ্বালার মতো লক্ষণ দেখা দেয়। তাছাড়া গ্যাসের সমস্যাও সৃষ্টি হতে পারে। দীর্ঘ দিন ধরে খালি পেটে চা পানের অভ্যাস গ্যাসের সমস্যাকে আরও বাড়াবাড়ি পর্যায়ে নিয়ে যেতে পারে।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সকালে ঘুম থেকে উঠে সবার আগে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে হাত-মুখ ধুয়ে নিতে হবে। এরপর কিছুটা পানি পান করে হালকা কিছু খাবার খেয়ে নিতে পারেন। তারপর চায়ের কাপে চুমুক দিন। এতে মন ও শরীর দুটিই ফুরফুরে থাকবে।

আরও পড়ুন