শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৫:৫৩ পূর্বাহ্ন

অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মোহাম্মদ রাশেদ খান হ’ত্যা মামলায় মৃ’ত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত টেকনাফ থানার বরখাস্ত ওসি প্রদীপ কুমার দাশ ও তার স্ত্রী চুমকির বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া দুর্নীতি মামলার রায় দেওয়া হয়েছে আজ। দুর্নীতি মামলায় বরখাস্ত ওসি প্রদীপকে ২০ বছর এবং তার স্ত্রী চুমকিকে ২১ বছরের কারাদণ্ড দেন আদালত।

সেই রায়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে প্রদীপ মন্তব্য করেন, ‘আমি দুর্নীতি করিনি। ন্যায়বিচার থেকে বঞ্চিত হয়েছি। বুধবার (২৭ জুলাই) দুপুরে রায়ের পর প্রদীপকে কারাগারে নিয়ে যাওয়ার সময় সংবাদকর্মীদের উদ্দেশ্য করে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

পুলিশ বেষ্টনী দিয়ে নিয়ে যাওয়ার সময় আদালতের বারান্দায় প্রদীপ বলতে থাকেন, আমি মাদ’কের বিরুদ্ধে যু’দ্ধ করেছি। মাদ’কের বিরুদ্ধে সরকারের জিরো টলারেন্স বাস্তবায়নে কাজ করেছি। আপনারা তদন্ত করে দেখেন সিনহা হ’ত্যা মামলায় যে রায় দেওয়া হয়েছে, সেখানে আমি সম্পূর্ণ নির্দোষ।

পুলিশের প্রিজনভ্যানে তোলার সময় পর্যন্ত প্রদীপ চিৎকার করে নিজেকে নির্দোষ দাবি করতে থাকেন। পরে প্রদীপ ও তার স্ত্রীকে পৃথক প্রিজনভ্যানে আদালত থেকে কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়।

এদিন সোয়া ১১টার দিকে দুদকের দায়ের করা অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় প্রদীপকে সাজা দিয়ে রায় ঘোষণা করেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় বিশেষ জজ মুন্সী আবদুল মজিদের আদালত। এর আগে, গত ২১ জানুয়ারি মেজর সিনহা হত্যা মামলায় প্রদীপকে ফাঁ’সিতে ঝুলিয়ে মৃ’ত্যুদণ্ডের আদেশ দেন কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ মোহাম্মদ ইসমাইল।

আরও পড়ুন