শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০২:৫৩ পূর্বাহ্ন

রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন জানিয়েছেন, রেলের সব কিছু ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছিল। সেখান থেকে এখন রেল ব্যবস্থাপনাকে যুগোপযোগী করেছি। মানুষ রেলে ভ্রমণের কথা ভুলে গিয়েছিলো কিন্তু এখন রেলের চাহিদা বেড়েছে। আমরা সব সময় যাত্রীদের কাঙ্ক্ষিত সেবা দেওয়ার জন্য সর্বোত্তম চেষ্টা করে যাচ্ছি। আজ বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) সুপ্রিম কোর্ট বারের অডিটোরিয়ামে এক অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, আমরা বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়ন করার চেষ্টা করে যাচ্ছি। রেলের অনিয়ম দূর করতে টিকিট কালোবাজারি মুক্ত করার চেষ্টা করেছি। তিনি বলেন, এক সময় তিন হাজার কিলোমিটার রেলপথ ছিল। সেটি কমে দুই হাজার ৫০০ কিলোমিটারে নেমে আসে।

রেললাইনই যদি না থাকে, তাহলে ট্রেন চলবে কীভাবে। এ অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা পৃথক রেল মন্ত্রণালয় গঠন করে দেন, এরপর নতুন যুগের সূচনা হয়। এ সময় মন্ত্রী জানান, বঙ্গবন্ধু সেতুর ওপর দিয়ে আলাদা রেললাইন সেতু ভবন করা হচ্ছে।

অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করেন সুপ্রিম কোর্ট বারের সভাপতি মোমতাজ উদ্দিন ফকির। বারের সম্পাদক আব্দুন নুর দুলালের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে আইনমন্ত্রী আনিসুল হক, বাংলাদেশ বার কাউন্সিলের সাবেক ভাইস চেয়ারম্যান ইউসুফ হোসেন হুমায়ুন, বেসামরিক ও বিমান পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন