মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ১২:৪৫ অপরাহ্ন

‘সাদা সাদা কালা কালা’ গানে মাতোয়ারা চারদিক। গান শুনে প্রাণ জুড়ালেও সিনেমাটি দেখার অপেক্ষায় দর্শকের মন অস্থির হয়ে আছে। রাত পোহালেই (২৯ জুলাই) মুক্তি পাবে বহুল প্রতীক্ষিত সেই ‘হাওয়া’। সিনেমা মুক্তির আগেই আগামী কয়েক দিনের টিকিট হাওয়া! এদিকে বারবার চেষ্টা করেও টিকিট না পেয়ে ধর্মঘটের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন জাজ মাল্টিমিডিয়ার কর্ণধার আব্দুল আজিজ।

বৃহস্পতিবার (২৮ জুলাই) বিকেলে ফেসবুকে নিজের ভেরিফায়েড আইডিতে এক স্ট্যাটাসে তিনি লিখেছেন, ‘আমি এখনও ‘হাওয়া’ সিনেমার চারটি টিকিট পাইনি। যা আমার ‘ইজ্জত কা শাওয়াল’। বসুন্ধরা সিনেপ্লেক্সে কর্তৃপক্ষকে অনুরোধক্রমে হুঁ’শিয়ারি জানাচ্ছি, যেহেতু আপনারা আমাকে চারটি টিকিট দিতে ব্যর্থ হয়েছেন (বারবার অনুরোধ করা সত্ত্বেও), সেহেতু কাল ‘হাওয়া’ ও ‘পরাণ’ সিনেমার আরেকটি শো বাড়ানোর জোর দাবি জানাচ্ছি। তা না হলে, আমরা সকল বাংলা সিনেমার মজনু বসুন্ধরার সামনে অবস্থান ধর্মঘট করব। দুনিয়ার বাংলা সিনেমার মজনু এক হও।’

এর কয়েক ঘণ্টা আগে আরেকটি স্ট্যাটাসে আব্দুল আজিজ জানান, ‘আমার মেয়ে আগামীকালের জন্য সিনেপ্লেক্সে ‘হাওয়া’ সিনেমার চারটি টিকিট চেয়েছে। আমি সিনেপ্লেক্সের সঙ্গে যোগাযোগ করেও টিকিট পেলাম না। কেউ কি টিকিট দিতে পারবেন? আমি টিকিটের দ্বিগুণ মূল্য দেব (এতে কি সিনেপ্লেক্সে ব্ল্যাক শুরু হচ্ছে)। কারণ, ‘ইজ্জত কা শাওয়াল’।’

প্রসঙ্গত, মাঝ সমুদ্রে বিভিন্ন ঘটনার ঘাত-প্রতিঘাতে গন্তব্যহীন হয়ে পড়া একটি ফিশিং ট্রলারের আট মাঝি-মাল্লা এবং এক রহস্যময় বেদেনীকে ঘিরে চলচ্চিত্রটির গল্প আবর্তিত হয়েছে। সেই তরুণীটিকে ঘিরে ধীরে ধীরে বাড়তে থাকে রহস্য। সে কি মানবী নাকি দেবী, এই চিন্তায় পড়েন মাঝিরা!

মিস্ট্রি ড্রামা ঘরানার ‘হাওয়া’ মূলত রূপকথা। বহুল প্রচলিত এই ফর্মটি সিনেমার পর্দায় নতুন আঙ্গিকে দেখতে পাবেন দর্শক। মেজবাউর রহমান সুমনের পরিচালনায় এই চলচ্চিত্রে আছেন চঞ্চল চৌধুরী, শরিফুল রাজ, সুমন আনোয়ার এবং সোহেল মণ্ডলের মতো শিল্পীরা। তবে সবাইকে ছাপিয়ে ‘হাওয়া’র রহস্য এগিয়েছে নাজিফা তুষিকে ঘিরে। অবশ্য চমক আছে চঞ্চলের চরিত্রেও।

আরও পড়ুন