শুক্রবার, ১৯ অগাস্ট ২০২২, ০৫:১০ পূর্বাহ্ন

কয়েক দিন আগে অভিনেত্রী অর্পিতা মুখার্জির দক্ষিণ কলকাতার ফ্ল্যাটে অভিযান চালায় ভারতের কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা ইনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। তারপর থেকে তুমুল আলোচনায় এই অভিনেত্রী। অভিযানে অর্পিতা মুখার্জির বেলঘরিয়ায় রথতলার একটি ফ্ল্যাট থেকে প্রায় ২৯ কোটি টাকা উদ্ধার করা হয়েছে। ব্যাগে, প্লাস্টিকের প্যাকেটে ভরে রাখা ছিল ওই টাকা। শৌচাগার থেকেও টাকা উদ্ধার করা হয়।

আলোচিত এই অভিনেত্রী পশ্চিমবঙ্গের সাবেক শিক্ষামন্ত্রী ও বর্তমান শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের ‘ঘনিষ্ঠ’ বলে দাবি করেছে ইডি। কী ভাবে পার্থর স’ঙ্গে আলাপ হয় অর্পিতার?

ইডির দাবি, এক প্রোমোটারের মাধ্যমে সাত বছর আগে পার্থর সঙ্গে আলাপ হয় অর্পিতার। এর পর থেকেই দু’জনের মধ্যে ‘ঘনিষ্ঠতা’ বাড়ে। ইডি সূত্রে খবর, পার্থর সঙ্গে তাঁর ‘পারিবারিক সম্পর্ক’ বলেও জেরায় দাবি করেছেন অর্পিতা। অভিযানে অর্পিতার বাসা থেকে প্রচুর পরিমাণে রুপোর কয়েন এবং রুপোর বাটিও উদ্ধার হয়েছে। এছাড়া আরো পাওয়া গিয়েছে বেশ কিছু সেক্স টয়।

আর এ খবর প্রকাশ্যে আসার পর হইচই পড়ে গিয়েছে সারা পশ্চিমবঙ্গে।এই নিয়ে শ্রীলেখা মিত্র কটাক্ষ করতে ছাড়লেন না প্রাক্তন মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় ও অর্পিতা মুখোপাধ্যায়কে। অর্পিতার ফ্ল্যাটে উদ্ধার হওয়া সে’ক্স টয় সংক্রান্ত খবরের স্ক্রি’নশট শেয়ার করে শ্রীলেখা লেখেন- ‘আহারে, তোমরা যেনো কী??? পার্থ বাবুর একটু ইচ্ছে করতে পারে না!!! শো’না বয়স বাধা নয়, জাতও কোনও বাধা নয়, সে’ক্স বারবার… এগিয়ে বাংলা’।

শাসকদলকে খোঁচা দিতে বরাবরই এগিয়ে শ্রীলেখা। বামঘনিষ্ঠ এই অভিনেত্রী পার্থকাণ্ড নিয়ে গত কয়েকদিনে সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচণ্ড সোচ্চার। বাংলার পরিস্থিতি নিয়ে ক্ষোভ উগরে কদিন আগেই অভিনেত্রী বলেছিলেন, ‘এ রাজ্যে জন্ম না হলেই ভালো হত, বড্ড দমবন্ধ লাগছে’। এছাড়া বৃহস্পতিবার সকালেও অর্পিতার ফ্ল্যাটে উদ্ধার হওয়া টাকা ও সোনার ছবি পোস্ট করে শ্রীলেখা বিদ্রুপ করে লেখেন, ‘বাবা মা কি শিক্ষা দিলে গো? কেন তৃণমূলি হোলেম না গো! (আহ! সবকিছু সিরিয়াসলি নিতে নেই)।’

আরও পড়ুন