মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ১২:৪৭ অপরাহ্ন

নোয়াখালী জেলা শহর মাইজদীতে প্রেমের ফাঁ’দে ফেলে ডেকে নিয়ে ও ভিডিও চ্যাটিংয়ের মাধ্যমে ঘ’নিষ্ঠ হয়ে সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হু’মকি দিয়ে প্র’তারণা করে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়ার অ’ভিযোগে প্র’তারক চক্রের ২ নারী সদস্যকে শুক্রবার বিকালে গ্রে’ফতার করেছে সুধারাম মডেল থানা পুলিশ। গ্রে’ফতারকৃত প্র’তারক (ছদ্মনাম) সুমী(২৪) ও কুলসুম(২৮) বাড়ি জেলার মাইজদী শহরে।

পুলিশের তথ্যে জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে একটি সংঘব’দ্ধ চক্র সামাজিকভাবে প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিবর্গকে কৌশলে প্রেমের ফাঁ’দে ফেলে ভিডিৃও চ্যাটিংয়ের মাধ্যমে ঘ’নিষ্ঠ হয়ে সেই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুম’কি দিয়ে প্র’তারণা করে আসছিলো।

এ সময় তাদের নিকট থেকে মোবাইলে ধারণকৃত বিভিন্ন জনের অ’শ্লীল ভি’ডিও ও মোবাইল উদ্ধার করা হয়। গ্রে’প্তারকৃ’তদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে প্র’তারক নারীরা জানায়, তারা ৫ থেকে ৬ বছর ধরে কয়েকজন মিলে মানুষের অ’ন্তর’ঙ্গ মু’হূর্তের ভিডিও ধারণ করে টাকা আদায় করে আসছিলো।

এ বিষয়ে নোয়াখালী জেলা পুলিশ সুপার মোঃ শহীদুল ইসলাম (পিপিএম) জানান, গ্রেফ’তারকৃত প্র’তারক চ’ক্রের ওই নারী সদস্যরা সমাজে প্রতিষ্ঠিত ব্যক্তিদের টার্গেট করে প্রেমের ফাঁ’দে ফেলে কৌশলে অ’ন্তর’ঙ্গ মুহূ’র্তের ভিডিও ধারণ করে ভ’য়ভী’তি দেখিয়ে মোটা অ’ঙ্কের টাকা আদায় করতো।

ভুক্তভোগীদের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ কৌশলে মাইজদী শহরের হাউজিং এলাকা তাদের গ্রেফতার করে। প’র্নোগ্রা’ফী আইনে তাদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়েছে।গ্রেফতারকৃতদের আদালতে সোর্পদ করা হবে। এই চ’ক্রের অন্যান্য সদস্যদের গ্রেফতারে পুলিশ অভিযান চালাচ্ছে।

আরও পড়ুন