বৃহস্পতিবার, ১১ অগাস্ট ২০২২, ০১:২২ অপরাহ্ন

রাজ্যের শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে অভিনেত্রী তথা মডেল অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের সম্পর্ক এবং ED-র হানায় কোটি কোটি টাকা উদ্ধার নিয়ে চলছে জোর আলোচনা। এই সম্পর্ক নিয়ে চর্চার মধ্যেই আজ আমরা আলোচনা করব, পাঁচ রাশির জাতক মহিলাদের নিয়ে, যাঁরা বয়সে অনেকটা বড় পুরুষদের প্রতিই সহজে আকৃষ্ট হন।

অর্পিতার নিয়ে এখন জোর চর্চা সর্বত্র। টিভি খুললেই শুধু ED-র হানায় কোটি কোটি টাকা উদ্ধারের হিসেব। এই বিপুল টাকা কোথা থেকে এল তাই নিয়ে আলোচনার মধ্যেই আরও যা এখন হট টপিক, তা হল Partha Chatterjee ও Arpita Mukherjee-র মধ্যে সম্পর্ক। তাঁর ‘বিশেষ বান্ধবী’ অর্পিতার বাড়িতে রাজ্যের প্রাক্তন শিল্পমন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের যে ঘন ঘন যাতায়াত ছিল তা এখন মোটামুটি আন্দাজ করা যাচ্ছে।

পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের জন্ম ১৯৫২ সালের ৬ অক্টোবর। সেই হিসেবে এখন তাঁর ৬৯ বছর বয়স। অন্যদিকে সূত্রের খবর অনুযায়ী অর্পিতার জন্ম ১৯৮৬ সালের ১০ জুন, বর্তমানে তাঁর বয়স ৩৬ বছর। অর্থাত্‍ ‘বিশেষ বান্ধবী’ অর্পিতার থেকে পার্থ ৩৩ বছরের বড়।

পার্থ ও অর্পিতার সম্পর্ক নিয়ে চর্চার মধ্যেই আজ আমরা দেখে নিই সেই পাঁচ রাশির জাতকের কথা, যে পাঁচ রাশির মহিলারা বয়সে অনেকটাই বড় পুরুষদের প্রতি আকৃষ্ট হন।

​সিংহ রাশি প্রেমের ক্ষেত্রে অত্যন্ত এনার্জেটিক ও আবেগপ্রবণ সিংহ রাশির জাতকরা। সিংহ রাশির মহিলারা সব সময় সঙ্গীর থেকে প্রচুর উপহার ও মনোযোগ কামনা করেন। সেই কারণে বয়সে অনেকটা বড় পুরুষদের প্রতিই এরা আকৃষ্ট হন সহজে। কারণ সুন্দরী তরুণী প্রেমিকার প্রতি বয়স্ক মানুষেরা একটু বেশিই মনোযোগ দেন। তার সঙ্গে সেই ব্যক্তি অবস্থাপন্ন হলে দামী উপহারেরও কমতি হয় না। এর সঙ্গে সঙ্গী তাঁর প্রতি কিছুটা পজেজিভ ও প্রটেক্টিভ থাকবেন, এমনটাও চান সিংহ রাশির মহিলারা। পরিণত মানসিকতার, পরিশীলিত, মার্জিত প্রবীণ পুরুষদের সঙ্গেই সম্পর্ক গড়ে তুলতে পছন্দ করেন সিংহ রাশির মহিলারা।

​মীন রাশি যার কাছে সম্পূর্ণ ভাবে আশ্রয় ও ভরসা পাবেন, তাঁর প্রতিই আকর্ষণ বোধ করেন মীন রাশির জাতক মহিলারা। বয়সে কিছুটা বড় পুরুষের থেকে সেই ভরসা পেলে তাঁর প্রেমেই পড়ে যান এরা। বয়সে বড় পুরুষ নিজের পরিণত বোধ-বুদ্ধি ও অভিজ্ঞতার সাহায্যে সব খারাপ কিছু থেকে দু-হাত দিয়ে এদের আগলে রাখেন। দিনের শেষে মীন রাশির মহিলারা এমন কারোর কাছে ফিরতে চান, যিনি মানসিক ভাবে শক্তপোক্ত, তার সঙ্গে ভদ্র ও দয়ালু। সেই কারণ সাধারণত বয়সে বড় পুরুষেরই প্রেমে পড়েন মীন রাশির মহিলারা।

​কন্য়া রাশি প্রেমিকার প্রতি খুব একটা মনোযোগ নেই, এমন কারোর প্রতি মোটেও আকর্ষণ বোধ করেন না কন্যা রাশির জাতিকারা। এরা তাঁর সঙ্গেই ডেট করতে পছন্দ করেন, যাঁরা তাঁর পছন্দ অপছন্দের দিকে পুরো খেয়াল রাখেন। নিজের মনের মতো সঙ্গী খুঁজে না পাওয়া পর্যন্ত একা থাকতেই এরা পছন্দ করেন। সেই কারণে চঞ্চলমতি তরুণদের থেকে পরিণত মানসিকতার প্রবীণ ব্যক্তিই বেশি পছন্দ কন্যা রাশির জাতকদের। কারণ এদের নিজেদের মধ্যে ধৈর্য্যের অভাব। তাই ধীর স্থির কাউকে এরা সঙ্গী হিসেবে বেশি উপযুক্ত মনে করেন। এমনকি নিজের থেকে ১২-১৩ বছরের বড় পুরুষেও আপত্তি থাকে না কন্যা রাশির মহিলাদের।

​কুম্ভ রাশি প্রেমের সম্পর্কে খুব একটা জড়াতেই চান না কুম্ভ রাশির জাতকরা। এরা সাধারণত প্রেম থেকে দূরে পালান। তবে প্রেম করলে বয়সে একটু বেশি বড় পুরুষকেই সাধারণত বেছে নেন এরা। কারণ এদের মতে অসমবয়সী প্রেমের সম্পর্ক দীর্ঘস্থায়ী হওয়ার সম্ভাবনা বেশি থাকে। কুম্ভ রাশির মহিলারা ব্যক্তিস্বাধীনতায় বিশ্বাসী। এরা তাই পরিণতমনস্ক, অভিজ্ঞ ও উদার কাউকে সঙ্গী হিসেবে বেছে নেন। জীবনের নানা অভিজ্ঞতায় পূর্ণ প্রবীণ ব্যক্তিরা কুম্ভ রাশির মহিলাদের অনেক বেশি আশ্রয়স্থল হয়ে ওঠেন।

​মকর রাশি মকর রাশির মহিলারা প্রেমের সম্পর্কের ক্ষেত্রে সাধারণত অল্পবয়সী পুরুষদের এড়িয়ে যান। কারণ এই রাশির মহিলারা মানসিক ভাবে অত্যন্ত পরিণত হন। তাই অল্পবয়লী প্রেমিকের ছেলেমানুষী এদের আকর্ষণ করে না। তার বদলে প্রবীণ পুরুষের অভিজ্ঞতা ও পরিণত বোধ-বুদ্ধি মকর রাশির মহিলাদের কাছে অনেক বেশি আবেদনময়। শক্তিশালী, দীর্ঘস্থায়ী সম্পর্ক পছন্দ করেন মকর রাশির মহিলারা। একটু বেশি বড় পুরুষদের মধ্যে সেই ভরসার জায়গাটা খুঁজে পান এরা। এই অসমবয়সী প্রেম নিয়ে কেউ কটাক্ষ করলে তাতে কিছুই আসে যায় না মকর রাশির মহিলাদের।

আরও পড়ুন