সোমবার, ১৫ অগাস্ট ২০২২, ০৬:০৯ অপরাহ্ন

টিকেট কালোবাজারিসহ রেলের অনিয়ম ও অব্যবস্থাপনা রোধ এবং দুর্নীতির বিরুদ্ধে জনগণকে সচেতন করতে পূর্বাঞ্চল রেলপথের আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশনে গণসংযোগ করেছেন ৬ দফা দাবিতে আন্দোলনকারী ঢাবি শিক্ষার্থী মহিউদ্দিন রনি।

রোববার (৩১ জুলাই) দিবাগত আড়াইটার দিকে চট্টগ্রামগামী মেইল (টু-ডাউন) ট্রেন যোগে আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশনে এসে যাত্রা বিরতি করেন তিনি। এসময় এক যাত্রীর কাছ থেকে টিকিটবাবদ অতিরিক্ত টাকা নেয়ার বিরুদ্ধে রনির তীব্র প্রতিবাদের মুখে ওই যাত্রীর টাকা ফেরত দেন বুকিং সহকারী।

ভুক্তভোগী যাত্রীর অভিযোগ, চট্টগ্রামগামী টু-ডাউন মেইল ট্রেনের টিকিটের মূল্য ৭৫ টাকা হলেও তার কাছ থেকে নেয়া হয় ১২০ টাকা। এতে সাথে সাথেই আখাউড়া স্টেশনের টিকিট কাউন্টারে চ্যালেঞ্জ করেন রনি। এসময় দীর্ঘ তর্ক-বিতর্কের পর কাউন্টারে দায়িত্বরত টিকিট বুকিং সহকারী আক্তার হোসেন যাত্রীকে অতিরিক্ত টাকা ফেরত দেন।

এ নিয়ে মহিউদ্দিন রনি বলেন, হাতেনাতে ধরা খেয়ে জনগণের তোপের মুখে টাকা ফেরত দিতে বাধ্য হয়েছেন ওই বুকিং সহকারী। জনতার এ সংগ্রাম চলছে এবং ভবিষ্যতেও চলবে বলে মন্তব্য করেন রনি। ঘটনার সময় রনির সঙ্গে ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগের আরও অন্তত ৫-৬ জন শিক্ষার্থী।

রেল ব্যবস্থা সংস্কারে ছয় দফা দাবি তুলে ধরে গণসংযোগ করেছেন ঢাবি ছাত্র মহিউদ্দিন রনি। আখাউড়া রেলওয়ে জংশন স্টেশনে কর্মসূচি শেষে সহযোগীদের নিয়ে চট্টগ্রামের উদ্দেশে ছেড়ে যাওয়া টু-ঢাউন চট্টগ্রাম মেইল ট্রেনে করে আখাউড়া ত্যাগ করেন তিনি।

আরও পড়ুন