মঙ্গলবার, ১৬ অগাস্ট ২০২২, ০৮:০৩ পূর্বাহ্ন

বাড়ির পরিচারকের প্রেমে পড়ে বিয়ের প্রস্তাব দিলেন এক পাকিস্তানি মহিলা। পাক রাজধানী ইসলামাবাদের অভিজাত এলাকা বাহরিয়ার ঘটনা।ভালবাসা মানে না কোনও বারণ, ফের এক বার তাই-ই প্রমাণ করলেন পাকিস্তানের এক যুগল। সুফিয়ান নামক এক ব্যক্তি পরিচারক হিসাবে কাজ করতেন নাজিয়া নামের এক মহিলার বাড়িতে। সুফিয়ানের প্রেমে মাতোয়ারা হয়ে তাঁকে বিবাহের প্রস্তাব দিলেন মালকিন নাজিয়া।

পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদের অভিজাত এলাকায় বাহরিয়াতে একাই থাকতেন নাজিয়া। কিন্তু একা হাতে বাড়ির কাজ সামলানো কঠিন হয়ে ওঠায় রোজকার কাজকর্ম করার জন্য লোক খুঁজছিলেন তিনি। তখনই আত্মীয়-পরিজনরা সুফিয়ানকে কাজে নিয়োগ করার পরামর্শ দেন। নরম ব্যবহারে অল্প দিনেই নাজিয়ার মন জিতে নেন সুফিয়ান।

এর পর এক দিন নাজিয়া অসুস্থ হয়ে পড়েন। সেই সময় ডাক্তার-বদ্যি ডাকা থেকে যত্ন করা সবই করেছেন সুফিয়ান। বাড়ির সব কাজও সামলেছেন একা হাতেই। সুফিয়ানের এ হেন ব্যবহারেই প্রেমে পড়ে যান নাজিয়া।

এক ইউটিউবারকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে নাজিয়া জানিয়েছেন, তিনি যখন সুফিয়ানকে প্রেমপ্রস্তাব দেন তখন উত্তেজনায় সংজ্ঞাহীন হয়ে পড়েন সুফিয়ান। জ্ঞান ফিরতেই নাজিয়ার প্রস্তাবে সম্মত হন তিনি।

নিজেদের সলমন খান ও ক্যাটরিনা কইফের সঙ্গে তুলনা করে নাজিয়ার দাবি, ধন-সম্পদের জন্য বহু পুরুষই প্রেমপ্রস্তাব দিয়েছেন তাঁকে। কিন্তু নিজের চরিত্রের গুণেই তাঁর মন জিতে নিয়েছেন সুফিয়ান।

আরও পড়ুন