শুক্রবার, ১২ অগাস্ট ২০২২, ০২:১৬ পূর্বাহ্ন

মেহেরপুরে অপহরণের মামলায় এক তরুণীকে গ্রেফতারের পর কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। তার বিরুদ্ধে অপহরণের মামলা করেছেন মুজিবনগর উপজেলার গৌরীনগর গ্রামের এক নারী। বাদীর অভিযোগ, আসামি তার কিশোরী মেয়েকে বিভিন্ন সময় এদিক-ওদিক নিয়ে যায়। তার মেয়ের সঙ্গে আ’সামির প্রেমের সম্পর্ক আছে বলে গ্রামে গুঞ্জন ওঠে। মেয়েকে র’ক্ষায় তিনি এই মামলা করেছেন বলে জানিয়েছেন।

মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদী রাসেল এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, মামলা হয়েছিল গত ২১ জুন। তবে আসামি তরুণীকে গ্রে’প্তার করা হয়েছে বুধবার। ওসি জানান, ২০০০ সালের নারী ও শিশু নি’র্যাতন দমন আইন (সংশোধিত) ২০০৩ এর ৭ ও ৩০ ধারায় এই মামলা হয়েছে।

স্থানীয়দের বরাতে ওসি বলেন, বাদীর কিশোরী মেয়েকে নিয়ে ওই তরুণী বিভিন্ন সময় ঘুরতে চলে যেতেন। এ নিয়ে এলাকায় গুঞ্জন ওঠে যে তারা সমকামী। কিশোরীর মা এরপর থেকে মেয়েকে ওই তরুণীর সঙ্গে মে’লামে’শা করতে নি’ষেধ করেন। তবে মেয়ে তা অমান্য করে গত ২০ জুন ওই তরুণীর সঙ্গে ফের বের হয়ে যায়। সে ফিরে না আসায় ২১ জুন তার মা গিয়ে তরুণীর নামে অ’পহরণের মামলা করেন। সেদিনই অবশ্য কিশোরী বাড়ি ফিরে আসে। ওসি আরও জানান, অভিযোগ তদন্তের পর বুধবার ওই তরুণীকে গ্রে’প্তার করা হয়।

মেহেরপুর নারী ও শিশু নি’র্যাতন দমন আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী (পিপি) আসাদুজ্জামান জানান, ওই কিশোরী ও তরুণীকে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (২য়) বিচারক তরিকুল ইসলামের আদালতে তোলা হয় বুধবার বিকেলে। দুজনই আদালতে ২২ ধারায় জবানবন্দি দেন। জবানবন্দি রেকর্ড শেষে কিশোরীর ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয় ও তাকে মা-বাবার হেফাজতে থাকার অনুমতি দেয়া হয়। আর আসামি তরুণীকে পাঠানো হয় কারাগারে।

আরও পড়ুন