শনিবার, ০২ Jul ২০২২, ০৫:০৩ পূর্বাহ্ন

বগুড়ার আদমদীঘিতে বাড়িতে ছাগল প্রবেশ করার জেরে এক গৃহবধূকে মা’রধরের পর তার মাথার চুল কেটে দেয়ার অভিযোগ উঠেছে দুই মামা শ্বশুরের বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত দুই মামাসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে পু’লিশ।

মঙ্গলবার (১৭ আগস্ট) দুপুরে উপজেলার সান্তাহার ইউনিয়নের দমদমা উত্তরপাড়া থেকে তাদের গ্রে’ফতার করা হয়েছে।এর আগে, ভুক্তভোগীর গৃহবধূর বাবা বাদী হয়ে সাতজনের নাম উল্লেখ করে থানায় একটি মামলা করেন।

গ্রেফতাররা হলেন- উপজেলার দমদমা গ্রামের মৃত কাজী আমজাদ হোসেনের ছেলে কাজী শাহিন (৫৫), তার ছোট ভাই কাজী ফরহাদ হোসেন (৫০) ও ফরহাদের স্ত্রী নারগিস বেগম (৩৭)।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ১৩ আগস্ট বাড়িতে ছাগল প্রবেশ করায় ওই গৃহবধূর সঙ্গে মামা শ্বশুরে ঝ’গড়া হয়। এর জেরে ১৬ আগস্ট রাত ৯টায় ঘরে ঢুকে তাকে মা’রধরের পর মাথার চুল কেটে দেন অভিযুক্তরা। ওই নারীর ছেলের চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এসে উদ্বার করে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করান।

আদমদীঘি থা’নার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জালাল উদ্দীন জানান, মা’মলা রুজু হওয়ার পর তিন আসামিকে গ্রে’ফতার করা হয়েছে। বাকিদেরও গ্রে’ফতারের জন্য তৎপরতা চালানো হচ্ছে।

আরও পড়ুন