সোমবার, ০৪ Jul ২০২২, ১১:৩৪ পূর্বাহ্ন

টিকিট ছিল, এমনকী আধার কার্ড দেখে সন্তুষ্ট হননি টিকিট পরীক্ষক। আর তাই পরিযায়ী শ্রমিকের অ’ন্তর্বা’সে হাত ঢুকিয়ে অবৈ’ধভাবে জরিমানার টাকা আদায় করে নেওয়ার অভিযোগ টিকিট চেকিং স্টাফের বিরুদ্ধে। চি’হ্নিত হওয়ার পরেই অভিযু’ক্ত টিসির বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে আরপিএফ। অন্যদিকে ওই যাত্রীকে ফেরত দেওয়া হয়েছে তাঁর টাকাও।

ঘটনাটি শনিবার সোয়া বারোটা নাগাদ ঘটে। ওই সময় হাওড়া স্টেশনের নিউ কমপ্লেক্সে তিরুচিরাপল্লী এক্সপ্রেস থেকে নামেন মুর্শিদাবাদের বাসিন্দা খোসমহম্মদ ও তার ভাই নূর মহম্মদ। ২ নম্বর গেট দিয়ে বেরোনোর সময় তিন টিকিট পরীক্ষক তাদের টিকিট দেখতে চান।

টিকিট দেখানোর পর আই কার্ড দেখতে চাই। কিন্তু আধার কার্ড দেখেও সন্তুষ্ট না হয় এরপর তাঁরা ৪ হাজার ২০০ টাকা জরিমানা করে। ঘটনার প্রতিবাদ করলে মা’রধরও করা হয় বলে অভিযোগ। এরপর মোবাইল-মানিব্যাগ কেড়ে নেওয়া হয়। কিন্তু মানিব্যাগে টাকা না থাকায়, খোসমহম্মদের অ’ন্তর্বাসে হাত ঢুকিয়ে বের করে নেওয়া হয় সাড়ে তিন হাজার।

ঘটনার পর খোসমহম্মদ যোগাযোগ করেন মুর্শিদাবাদের চাইল্ড ওয়েলফেয়ার সেন্টারের সঙ্গে। রাখি হাওড়ার এডিআরএমকে বিষয়টি জানানো হয়। এরপর তাঁর নির্দেশেই নড়েচড়ে বসে হাওড়া নিউ কমপ্লেক্সের আরপিএফ পোস্ট।

সিসিটিভি দেখে শনাক্ত করা হয়েছে অভিযু’ক্ত টিসিকে। তাঁর কাছ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে সাড়ে তিন হাজার টাকা।

খড়্গপুরের সিনিয়র ডিসিএম গরজ সিং চরণ বলেন, ‘অভিযোগকা’রীকে তাঁর টাকা ফেরত দেওয়া হয়েছে। এদিকে অভিযু’ক্ত টিসির বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ করা হবে।’ – ডেইলি হান্ট

আরও পড়ুন