শুক্রবার, ০১ Jul ২০২২, ০১:৪১ পূর্বাহ্ন

নোয়াখালীতে জন্মদিনের অনুষ্ঠান থেকে এক প্রবাসীর স্ত্রীকে (২২) তুলে নিয়ে ধ’র্ষণ করার অভিযোগ উঠেছে। গত শুক্রবার রাত ১০টায় সেনবাগ উপজেলার কাদরা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে।

আজ সোমবার দুপুরে এ ঘটনায় নারী ও শিশু নি’র্যাতন দমন আইনে সেনবাগ থানায় মা’মলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী ওই নারী। অভিযুক্ত ওই যুবকের নাম ফরহাদ। তিনি নন্দীরপাড় ভূঞা বাড়ির লেদু মিয়ার ছেলে।

মা’মলা সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার রাতে ওই গৃহবধূ তার বান্ধবীর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে তাদের বাড়িতে যান। সেখানে কেক কাটার পর স্থানীয় লেদু মিয়ার ছেলে ফরহাদের (২৫) নেতৃত্বে ৫ থেকে ৭ জন লোক ওই বাড়িতে আসে। এ সময় তারা অনুষ্ঠানে আসা গৃহবধূর সঙ্গে রাজন নামে এক যুবকের সম্পর্ক আছে- এমন অভিযোগ তুলে তাদেরকে ফরহাদের বিল্ডিংয়ে নিয়ে আ’টক করে।

একপর্যায়ে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। রাজন চাঁদা দিতে অস্বীকার করে এবং বিভিন্ন জায়গায় ফোনে যোগাযোগ করলে কিছুক্ষণ পর রাজনকে ছেড়ে দেওয়ার জন্য ফোন এলে তারা রাজনকে ছেড়ে দেয়।

কিন্তু গৃহবধূকে আট’কে রেখে কুপ্র’স্তাব দেয় তারা। এতে রাজি না হলে ফরহাদ তাকে ধ’র্ষণ করেন। এ সময় তার সহযোগীরা বাইরে পাহারা দেয়। ভুক্তভোগীর বান্ধবী রিমা বলেন, ‘অনুষ্ঠান থেকে ফরহাদের নেতৃত্বে চিহ্নিত সন্ত্রাসীরা তুলে নিয়ে ধ’র্ষণের ঘটনায় হতবাক হয়েছি। তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।’

বিষয়টি নিশ্চিত করে সেনবাগ থা’না পু’লিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আব্দুল বাতেন মৃধা বলেন, এ ঘটনায় ভু’ক্তভোগী গৃহবধূ আজ ফরহাদকে প্রধান ও দুইজনকে সহযোগী উল্লেখ করে মোট তিনজনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নি’র্যাতন দমন আইনে মা’মলা দায়ের করেন। গৃহবধূকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া অভিযুক্ত আসা’মিদের গ্রে’প্তারে পু’লিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে

আরও পড়ুন