রবিবার, ০৩ Jul ২০২২, ০২:৫৩ অপরাহ্ন

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের ক্যাপ্টেন নওশাদ আতাউল কাইয়ুমের ম’রদেহ যত শিগগিরই সম্ভব দেশে ফিরিয়ে আনতে সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। গত শুক্রবার থেকে ভারতের মহারাষ্ট্রের কিংসওয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর আজ সোমবার তিনি মা’রা গেছেন।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস আজ সন্ধ্যায় এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানায়, ‘মরহুম ক্যাপ্টেনের মরদেহ যত শিগগিরই সম্ভব দেশে ফিরিয়ে আনতে বিমান সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।’

এতে আরো বলা হয়, বিমানের পক্ষ থেকে আগামীকাল বাদ জোহর সব মসজিদে মরহুমের রুহের মাগফিরাত কামনায় বিশেষ দোয়া করা হবে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আজ ক্যাপ্টেন নওশাদ আতাউল কাইয়ুমের মৃ’ত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন। এক শোক বার্তায় প্রধানমন্ত্রী মরহুমের আত্মার শান্তি কামনা করেন এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানান।

রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন এয়ারলাইনসটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং সিইও ড. আবু সালেহ মোস্তফা কামালসহ সব পর্যায়ের কর্মী ক্যাপ্টেন কাইয়ুমের মৃ’ত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। তারা কাইয়ুমের পরিবারের সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।

বেসামরিক বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মো. মাহবুব আলী ও সচিব মো. মোকাম্মেল হোসেন পৃথক শোক বার্তায় ক্যাপ্টেন কাইয়ুমের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দুঃখ প্রকাশ করেছেন।

শুক্রবার মাস্কাট থেকে ঢাকা অভিমুখী বাংলাদেশ বিমান এয়ারলাইনসের ফ্লাইট (বিজি-০০২২) চালানোর সময় মাঝ আকাশে নওশাদ ‘বড় ধরনের হৃদরোগে’ আক্রা’ন্ত হন। চার দিন ধরে তিনি ‘কোমায়’ এবং হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) ভেন্টিলেশন সাপোর্টে ছিলেন।

আরও পড়ুন