শুক্রবার, ০১ Jul ২০২২, ০১:১৭ পূর্বাহ্ন

মা’দক মা’মলায় গ্রে’প্তার স্বামীকে জামিনে মুক্ত করতে এসে দুই দফায় এক নারী ধ’র্ষণের শিকার হয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ৪০ বছর বয়সী ওই নারী কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় এসে ধ’র্ষণের শিকার হন। একই সঙ্গে ছিনিয়ে নেওয়া হয়েছে তার ৫৫ হাজার টাকা।

এ ঘটনায় আজ মঙ্গলবার বিকেলে ফতুল্লা মডেল থানায় ওই নারী ফিরোজ মিয়া (২৮) নামে এক যুবকের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন। ফিরোজ মিয়া জামালপুর জেলার ইসলামপুর থানার আমপুর গ্রামের লেবু মিয়ার ছেলে। তিনি ফতুল্লার ইসদাইর এলাকায় আল আমিনের বাড়ির ভাড়াটিয়া।

মা’মলায় উল্লেখ করা হয়, ফিরোজ মিয়া ওই নারীকে ১৫ জুলাই টাকা নিয়ে ফতুল্লায় আসতে বলেন। এরপর তার স্বামীকে আদালত থেকে জামিনে মুক্ত করে দিবেন। ফিরোজের কথায় ওই নারী ২০ জুলাই ৫৫ হাজার টাকা নিয়ে কক্সবাজারের টেকনাফ থেকে ফতুল্লায় আসেন।

এরপর ফিরোজ তার ভাড়াবাড়িতে ওই নারীকে নিয়ে রাখেন এবং জামিন করানোর ৫৫ হাজার টাকা নিয়ে যান। এদিন রাত সাড়ে ১২টায় ফিরোজ ঘুমন্ত অবস্থায় ওই নারীকে প্রথম ধ’র্ষণ করেন। পরের দিন স্বামীকে জেলে দেখা করানোর কথা বলে আরেকটি বাসায় নিয়ে দ্বিতীয় দফায় ধর্ষণ করেন।

এরপর ভ’য়ভীতি দেখিয়ে ওই নারীকে চাষাঢ়া নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

ফতুল্লা মডেল থা’নার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্ত (ওসি) রকিবুজ্জামান জানান, নারীর অভিযোগে মা’মলা গ্রহণ করা হয়েছে। আসা’মিকে গ্রে’প্তারের চেষ্টা চলছে।

আরও পড়ুন