সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২, ০১:১৪ পূর্বাহ্ন

এবার ভারতের মহারাষ্ট্রের পালঘরের কয়েক জন মৎস্যজীবী সম্প্রতি সমুদ্রে মাছ ধরতে যান। গভীর সমুদ্রে বিভিন্ন মাছের পাশাপাশি তারা পেয়েছিলেন ১৫৭টি ঘোল মাছ। এই মাছই বদলে দিলো ওই জেলেদের জীবন। মাছগুলি বিক্রি হয়েছে ১ কোটি ৩৩ লাখ টাকায় (ভারতীয় রূপি)।

গত ২৮ আগস্ট সন্ধ্যায় হারবা দেবী থেকে মাছ ধরার উদ্দেশ্যে বের হয়েছিলেন চন্দ্রকান্ত তারে। আটজন সহকর্মীকে নিয়ে মাছ ধরতে যান তিনি। সেই যাত্রাতেই তাদের জালে ধরা পড়ে দুর্মূল্য এই মাছ। তার পর পালঘরের মুরবে এলাকায় নিলামে তোলা হয় ওই মাছগুলি। সেখানেই উত্তরপ্রদেশ এবং বিহারের ব্যবসায়ীরা কিনেছেন এই মাছ।

জানা যায়, ঘোল মাছ ‘সি গোল্ড’ নামেও পরিচিত। এর বিজ্ঞানসম্মত নাম ‘প্রোটোনিবিয়া ডায়াকানথুস’। এই মাছের প্রত্যেকটি অংশ ওষুধ এবং প্রসাধন তৈরির কাজে ব্যবহৃত হয়। ওষুধ, প্রসাধন, দেহের সঙ্গে মিশে যাওয়া সেলাইয়ের সুতো-সহ বিভিন্ন জিনিস তৈরিতে ব্যবহার করা হয় এই মাছ।

এদিকে হংকং, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, ইন্দোনেশিয়া, সিঙ্গাপুর, জাপানে এই মাছের বিপুল চাহিদা রয়েছে। কিন্তু দূষণের জন্য অনেক কমেছে ঘোল মাছ। তা পেতেই ভাগ্য ফিরতে চলেছে ওই মৎস্যজীবীদের।

সূত্র: আনন্দবাজার।

আরও পড়ুন