শনিবার, ০২ Jul ২০২২, ০৪:০৮ পূর্বাহ্ন

খুলনার পাইকগাছা উপজেলায় একাধিক নারীর সাথে মেলামেশার পর ভিডিও ধারণ করে তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে তাপস (বাবলু) ব্যানার্জি নামে এক ব্যক্তিকে গ্রে’ফতার করা হয়েছে।

সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) ভোর সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার মটবাটী গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রে’ফতার করা হয়। গ্রেফতার তাপস (বাবলু) ব্যানার্জি একই গ্রামের কিরণ ব্যানার্জির পুত্র।

জানা গেছে, একই এলাকার এক গৃহবধূর সঙ্গে অবৈধ মেলামেশা করে তা ভিডিও ধারণ করে বাবলু। গত ১৬ আগস্ট রাতে আবারও একই উদ্দেশে তার কাছে যায়। তাকে কোনো অবৈধ সুযোগ না দিতে চাওয়ায় ভিডিও দেখিয়ে ব্লাক মেইল করে বাবলু। ভিকটিম কোনো সুযোগ না দিয়ে তাকে তাড়িয়ে দেয় এবং তার স্বামীকে ঘটনাটি জানান।

ঘটনাটি বাবলু জানতে পেরে তার কাছে থাকা ভিডিওটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়। এ ঘটনায় ভিকটিম বাদী হয়ে রবিবার রাতে থানায় ধর্ষণ ও পর্নোগ্রাফি আইনে মামলা হয়।

সোমবার (৬সেপ্টেম্বর) ভোর সাড়ে ৫টার দিকে উপজেলার মটবাটী গ্রামে নিজ বাড়ি থেকে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে। বাবলু এলাকার একাধিক নারীর সঙ্গে এভাবে অসামাজিক কর্মে লিপ্ত থেকে তা ভিডিও ধারণ করে একইভাবে ছড়িয়ে দিয়েছে।

ধৃত বাবলু একজন চরিত্রহীন ব্যক্তি, যা ভিডিওগুলোতে দেখা যায়। তার বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান মামলার তদন্ত কর্মকর্তা তাকবীর হোসেন।

পাইকগাছা থা’নার ওসি (তদন্ত) স্বপন রায় জানান, তার বিরুদ্ধে আরও অনেক নারীর সাথে এ ধরনের জঘন্য অপরাধের অভিযোগ রয়েছে। বাবলুকে গ্রেফতার করে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

আরও পড়ুন