সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৭:৫৪ পূর্বাহ্ন

সিলেটের ওসমানীনগরে ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের একটি এটিএম বুথ ভেঙে টাকা লুটের ঘটনায় ৩ জনকে গ্রে.ফতার করেছে ডিএমপি (ডিবি) পুলিশ।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) ​ধারাবাহিক অভিযানে রাজধানী ও হবিগঞ্জ জেলার বিভিন্ন এলাকা হতে তাদেরকে গ্রে.ফতার করা হয়। গ্রে.ফতারকৃতরা হলো, মো. শামীম আহাম্মেদ, নূর মোহাম্মদ সেবুল ও মো. আব্দুল হালিম। এ সময় কাছ থেকে ডা.কাতি করা ২৪ লাখ টাকার মধ্যে ১০ লাখ ৮ হাজার টাকা, ছিন.তাই কাজে ব্যবহৃত ২টি মোবাইল ফোন, ১টি ছু.রি, ১টি প্লাস ও মাথায় ব্য.বহৃত ৩ টি কাপড়ের টুকরা জব্দ করা হয়।

বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ বিষয়ে বিস্তারিত জানান ডিএমপির যুগ্ম পুলিশ কমিশনার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।

ডিএমপির যুগ্ম পুলিশ কমিশনার বলেন, গ্রেফতারকৃতরা তথ্য প্রযুক্তি জ্ঞান সম্পর্কে পারদর্শী। এটিএম বুথের এটিএম মেশিন ভেঙ্গে টাকা লুটের মূল পরিকল্পনাকারী মো. শামীম আহাম্মেদ নিয়মিত ভারতীয় মেগা সিরিয়াল ‘সিআইডি’ অনুষ্ঠানটি দেখতেন। সেই সিরিয়াল দেখে এটিএম বুথের মেশিন ভাঙ্গার কলাকৌশল রপ্ত করেন এবং টাকা লু.টের পরিকল্পনা গ্রহণ করে।

তিনি আরও বলেন, পরিকল্পনা মোতাবেক তার সহযোগী গ্রে.ফতারকৃত নূর মোহাম্মদ সেবুল ও মো. আব্দুল হালিমদের সাথে আলোচনা করে। পরিকল্পনা বাস্তবায়নের জন্য তারা মুখে মাস্ক, মাথায় গোলাপি রংয়ের কাপড় বেঁধে ও মাথায় ক্যাপ পরিধান করে এবং শাবল ও অন্যান্য য.ন্ত্রপাতিসহ ইউনাইটেড কমার্শিয়াল ব্যাংকের শেরপুর শাখার এটিএম বুথে প্রবেশ করে।

এটিএম বুথের সিসিটিভি ক্যামেরায় তাদের চেহারা যেন না দেখা যায় সেজন্য কালো রংয়ের স্প্রে করে ক্যামেরার লেন্স ঝাপসা করে দেয়। এ সময় তারা এটিএম বুথের সিকিউরিটি গার্ডকে মা.রধ.র করে ও হাত ও মুখ বেঁধে দেয়া।

পরবর্তীতে তারা শাবল দিয়ে এটিএমে বুথের লক ও বক্স ভে.ঙ্গে ২৪ লাখ ২৫ হাজার ৫০ টাকা নিয়ে যায়। গ্রেফ.তারকৃতদের বি.রুদ্ধে অন্যান্য থানায় মা.মলার ত.থ্য পাওয়া যায়।

আরও পড়ুন