বৃহস্পতিবার, ০১ ডিসেম্বর ২০২২, ০৬:৩২ অপরাহ্ন

আজম আলীর বয়স ৫৮ বছর। তবে ছিলেন অবিবাহিত। মঙ্গলবার (২৮ সেপ্টেম্বর) রাতে মধ্য বয়সী এক ‘প্রেমিকা’ সঙ্গে দেখা করতে যান তিনি। এমন ‘ধরা’ পড়ে যান এলাকাবাসীর কাছে। পরে এলাকাবাসী তাকে বাধ্য করেন শেষ বয়সে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে।

আজম আলী রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার ইউসুফপুর ইউনিয়নের ৬নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক। বিয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করে কাজী আবুল বাশার বলেন, সাড়ে ছয় লাখ টাকা দেনমোহরে তাদের বিয়ের রেজিস্ট্রি করা হয়।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দুই বছর আগে আজম আলীর কাছে ওই নারী জমি বিক্রয় করেন। এই সুবাদে তাদের মধ্যে পরিচয় ও সম্পর্কের সূত্রপাত। এ সম্পর্কের টানে মঙ্গলবার রাতে মধ্যবয়সী নারীর বাড়িতে যান আজম। সেখানে গ্রামবাসী তাদেরকে ‘আটক’ করে কাজী ডেকে বিয়ে দেন।

ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান মো. শফিউল আলম রতন বলেন, আজম আলী অনেক বয়স হওয়ার পরেও বিয়ে করছিলো না। এদিকে ওই নারীর সঙ্গে তার ভালো সম্পর্ক ছিলো। তিনিও বিধবা। আর তাই দুই পরিবারের মধ্যে আলাপ-আলোচনা করেই মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টার দিকে তাদের বিয়ে হয়।

আরও পড়ুন