সোমবার, ০৪ Jul ২০২২, ০১:৫৬ পূর্বাহ্ন

ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ায় ডাকা’তি মাম’লার সন্দে’হভাজন আসামি ধরতে গিয়ে স্থানীয়দের গণপিটু’নির শিকার হয়েছেন দুই পু’লিশ কর্মকর্তা। শনিবার (০২ অক্টোবর) বিকালে উপজেলার ছোট কৈখালী গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

হামলায় আ’হতরা হলেন, রাজাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুল হালিম তালুকাদার ও সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) নুরুজ্জামান। তাদেরকে রাজাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় পু’লিশ বাদী হয়ে ৯ জনকে আসামি করে কাঁঠালিয়া থা’নায় একটি মা’মলা দায়ের করেছে। ঘটনার দিন রাতেই দুই নারীসহ ৩ জনকে আ’টক করেছে। তারা হলেন, ছোট কৈখালী গ্রামের মৃত কাদের হাওলাদারের ছেলে আবুল কালাম হাওলাদার, তার ভাইয়ের স্ত্রী মাহফুজা বেগম ও জাহানারা বেগম।

জানা যায়, হত ১৫ সেপ্টেম্বর রাজাপুরের গালুয়া ইউনিয়নের পুটিয়াখালী গ্রামে মো. ফরিদ খন্দকারের বাড়িতে ডাকা’তির ঘটনা ঘটে। ডাকা’তরা অলংকার ও নগদ টাকা লুট করার পাশাপাশি নিয়ে যায় বাড়িতে পোষা ময়না পাখিটিও। এ ঘটনায় পরদিন (১৬ সেপ্টেম্বর) অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে মা’মলা দায়ের করা হয়।

মাম’লার তদন্তে নেমে পু’লিশ জানতে পারে কাঁঠালিয়ার ছোট কৈখালী গ্রামের আবুল কালামের নাম। বিষয়টি আরও ভালোভাবে তদন্তের জন্য সাদা পোশাকে শনিবার আবুল কালামের বাড়িতে যায় রাজাপুর থা’নার ওই দুই কর্মকর্তা। তখন বাড়ির ও তাদের প্রতিবেশি অর্ধ শতাধিক লোক তাদের ওপর হামলা চালায়।

পরে খবর পেয়ে বিকালে রাজাপুর ও কাঁঠালিয়া থা’নার পু’লিশ গিয়ে আহত অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে। এ সময় অভিযুক্ত আবুল কালামসহ তিনজনকে আ’টক করা হয়।

রাজাপুর থানার ওসি মো. শহিদুল ইসলাম বলেন, আহত পু’লিশ কর্মকর্তাদের চিকিৎসা চলছে। আট’কৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

কাঁঠালিয়া থা’নার ওসি পুলক চন্দ্র রায় বলেন, পু’লিশের ওপর হামলার ঘটনায় এএসআই নুরুজ্জামান বাদী হয়ে একটি মা’মলা করেছেন। ওই মা’মলায় তিনজনকে আ’টক করা হয়েছে।

আরও পড়ুন