সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ০৬:১০ পূর্বাহ্ন

গাজীপুরে স্কুল ছুটির পর খালি অফিসে একজন সহকারী শিক্ষিকাকে ধ’র্ষণের অভিযোগ উঠেছে একজন প্রধান শিক্ষকের বিরুদ্ধে। ভিকটিম ময়মনসিংহের ভালুকা থানায় ডাকাতিয়া গ্রামের শামসুল হকের ছেলে সাদেকুল ইসলাম সেলিম (৪০) এর বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যা’তন দমন আইনে (মাম’লা নং ১) একটি ধ’র্ষণ মা’মলা দায়ের করেছে।

সাদেকুল ইসলাম সেলিম বর্তমানে গাজীপুরের সদর উপজেলায় বসবাস করছেন এবং ভাওয়াল মির্জাপুর ইউনিয়নের ক্রিয়েটিভ স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রধান শিক্ষক হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

মা’মলা সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী ৬ মাস আগে সৃজনশীল স্কুল ও কলেজে সহকারী শিক্ষিকাকে হিসেবে যোগদান করেন। আসা’মীর কার্যালয় এবং ভিকটিমের কর্মস্থল একই রুমে থাকার কারণে, স্কুলের প্রধান শিক্ষক প্রায়ই বির’ক্তিকর এবং খারাপ প্র’স্তাব নিয়ে আসেন।

উত্তরদাতা প্রস্তাবে রাজি না হওয়ায় ২০২১ সালের ২৬ শে জুন, স্কুল ছুটির পর বিকাল ৩ টায় অফিস রুমে শিক্ষার্থীদের অ্যাসাইনমেন্ট প্রস্তুত করার সময়, উত্তরদাতা পূর্বপরিকল্পিতভাবে অফিস রুমের দরজা বন্ধ করে দেন পদ্ধতিতে এবং জোর করে ধ’র্ষণ করা হয়েছে এবং গো’পনে ধ’র্ষণের ভিডিও রেকর্ড করা হয়েছে। পরে ধর্ষ’ণের ভিডিও ইন্টারনেটে ভাইরাল করার ভয়ে প্রধান শিক্ষক তাকে একাধিকবার ধর্ষ’ণ করেন।

জয়দেবপুর থা’নার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাহাতাব উদ্দিন বলেন, নারী ও শিশু নি’র্যাতন আইনে একটি ধ’র্ষণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্ত বর্তমানে পলাতক, তার জন্য আমাদের অনুসন্ধান অব্যাহত রয়েছে।

আরও পড়ুন