সোমবার, ০৪ Jul ২০২২, ০৩:২২ পূর্বাহ্ন

লেডিজ ফার্স্ট, কথাটি শুনেছেন নিশ্চয়ই। ভদ্রলোকরা নানা কারণে একথা বলেই থাকেন। তবে রাজস্থানের এক রেস্তোরাঁয় খাবার খেতে গেলে এই ভদ্রলোকদেরই লেডিজ ওনলি শর্ত মানতে হবে। কি বুঝতে পারছেন না?
তাহলে একটু খোলসা করেই বলা যাক।

নারীদের সঙ্গে নিয়ে গেলে তবেই প্রবেশ করতে দেওয়া হবে, পুরুষদের জন্য এমনই নির্দেশিকা জারি করেছে রাজস্থানের এর এক রেস্তোরাঁয়। হর্ষিতা শর্মা নামের এক নেটিজেনের মাধ্যমে এই খবর প্রকাশ্যে আসে। টুইটারে রেস্তোরাঁয় বসে থাকার ছবি পোস্ট করেন হর্ষিতা। তার মাথার উপরে থাকা এসিতে লেখা ছিল রেস্তোরাঁর নির্দেশিকা। ‘এখানে নারীদের সঙ্গেই পুরুষদের প্রবেশের অনুমতি রয়েছে।’

ছবিটির ক্যাপশনে হর্ষিতা লেখেন, ‘এই কারণেই আমাকে ডাল-রুটি খেতে রেস্তোরাঁটিতে আনা হয়েছে।’ হর্ষিতার পোস্ট করা ছবি এরই মধ্যে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে। তাতে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেওয়া হয়েছে। কেউ রসিকতা করে হর্ষিতাকে লিখেছেন, ‘আপনি সঙ্গে গেলে আমি সুস্বাদু খাবার খেতে পারবো।’ কেউ আবার ক্ষুব্ধ হয়ে প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন। লিখেছেন, ‘আমি তাহলে ৩০ বছরের সিঙ্গল পুরুষ হয়ে আমি কীভাবে যাব। এই ভোজনালয় পুরুষদের অপমান করছে।’

নিজের পরের পোস্টে রেস্তোরাঁর নাম জানিয়েছেন হর্ষিতা। জয়পুরে অবস্থিত গোপী পবিত্র ভোজনালয়। যার নামের উপরে লেখা শুধু নারী আর পরিবারের জন্য। রেস্তোরাঁর খাবার খুবই ভালো খেতে, ক্যাপশনে দাবি করেন হর্ষিতা। তবে পুরুষদের ক্ষেত্রে শর্ত একটাই, কোনো নারীকে সঙ্গে নিয়ে যেতে হবে।

কেন এমন অদ্ভূত নিয়ম? শোনা গিয়েছে, নারীদের প্রতি সম্মান জানাতেই এই নির্দেশিকা জারি করেছে রাজস্থানের রেস্তোরাঁ।

আরও পড়ুন