সোমবার, ০৪ Jul ২০২২, ০২:৫৯ পূর্বাহ্ন

গাড়ির কাগজপত্র পরীক্ষা করার সময় পু’লিশ সদস্যকে অপ’হরণের ঘটনা ঘটেছে ভারতের উত্তরপ্রদেশে। রোববার রাজ্যের গ্রেটার নয়ডা এলাকার সূরজপুরে অদ্ভূত এ কাণ্ডটি আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

আনন্দবাজার পত্রিকা জানিয়েছে , ট্রাফিক কনস্টেবলকে অপহরণের অভিযোগে উত্তরপ্রদেশ পু’লিশ ২৯ বছরের সচিন রাওয়াল নামে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করেছে। দু’বছর আগে গুরুগ্রামে একটি গাড়ির দোকান থেকে ‘টেস্ট ড্রাইভ’-এর নাম করে গাড়ি চু’রি করেছিলেন তিনি।

খবরে বলা হয়, সূরজপুরে গাড়ির কাগজপত্র পরীক্ষা করছিলেন উত্তরপ্রদেশ পু’লিশ সদস্যরা। রাস্তায় চলাচলকারী সব গাড়ি থামিয়ে কাগজ দেখছিলেন তারা। এমন সময় একটি ‘সুইফট ডিজায়ার’ গাড়ি এসে দাড়ায়।

পু’লিশ সদস্যরা কাগজ চাইলে উত্তর আসে, ‘মোবাইলে কাগজের ছবি নেই কিন্তু গাড়িতে কাগজ রাখা আছে। একজন গাড়িতে উঠে কাগজ দেখে যান।’

পরে এক পু’লিশ সদস্য উঠে বসেন গাড়িতে। কিন্তু কাগজ দেখানোর পরিবর্তে গাড়ির গতি বাড়ান চালক। মুহূর্তে পুলি’শকর্মীকে নিয়ে ধুলো উড়িয়ে হাওয়া হয়ে যায় গাড়িটি।

এ ঘটনায় পুরো এলাকায় হইচই পড়ে যায়। হতবাক পুলি’শকর্মীরাও। শেষ পর্যন্ত ঘটনাস্থল থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে একটি পু’লিশ ফাঁড়ির সামনে অপহৃত পু’লিশকর্মীকে নামিয়ে দেন সচিন। পরে পু’লিশ স’চিনকে গ্রেফতার করে।

জানা গেছে, দু’বছর আগে হরিয়ানার গুরুগ্রামের একটি গাড়ির শো-রুম থেকে ‘টেস্ট রাইড’ করার নাম করে একটি ‘সুইফট ডিজায়ার’ গাড়ি নিয়ে পালান সচিন।

পু’লিশের কাছে তথ্য ছিল, জাল নম্বর প্লেট লাগানো সেই চোরাই গাড়ি নিয়ে গ্রেটার নয়ডা এলাকায় ঘুরছেন এক ব্যক্তি। কিন্তু ছক কষে চোরাই গাড়ি ধরতে গিয়ে উল্টে বিপাকে পড়ে গিয়েছিল পু’লিশই। পু’লিশকর্মীকে অপহ’রণসহ একাধিক ধারায় সচিনের বিরুদ্ধে মা’মলা দায়ের হয়েছে।

আরও পড়ুন