সোমবার, ০৪ Jul ২০২২, ০৫:৫৫ অপরাহ্ন

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাটে ২০টি গাড়িসহ ডুবে গেছে ফেরি আমানত শাহ। সকাল ৯ টার দিকে দৌলতদিয়া ঘাট থেকে ১৭ টি ট্রাক ও ৩ টি প্রাইভেট কারসহ বেশকিছু মোটরসাইকেল নিয়ে ছেড়ে য়ায় ফেরিটি। পরে মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ঘাটে পৌছানোর আগেই এক পাশ হেলে গিয়ে ডুবে যায় ফেরিটি। এ ঘটনায় গাড়ি গুলো উদ্ধারের কাজ চলছে।

বিআইডব্লিউটিসির উপমহাব্যবস্থাপক জিল্লুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাট থেকে যানবাহন নিয়ে শাহ আমানত নামের বড় আকারের ফেরিটি পাটুরিয়ার ৫ নম্বর ঘাট পন্টুনে নোঙর করে। স্বাভাবিকভাবে ফেরি থেকে যানবাহনগুলো আনলোডের সময় আকস্মিক ফেরিটি নদীতে ডুবে যায়। এখনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

তবে সৌভাগ্যবসত এ সময়ে প্রাণে যান অনেকেই। আর তাদের মধ্যে একজন যশোরের মনিরামপুরের অমল ভট্টাচার্য্য। তিনি ফুরিদপুরে একটি বেসরকাটি প্রতিষ্টানে চাকরি করেন। এক ব্যক্তি সকালে মোটরসাইকেল নিয়ে ফরিদপুর থেকে দৌলতদিয়ায় এসে ফেরি শাহ আমানতে উঠেছিলেন নদী পার হওয়ার জন্য।ফেরি উল্টে যাওয়ার সময় তিনি কোনোক্রমে উদ্ধার পেলেও মোটরসাইকেলটি হারিয়েছেন।

ঘটনার বিবরণ দিয়ে তিনি বলেন, “ফেরিতে বেশিরভাগ ছিল মালবোঝাই ট্রাক আর কভার্ড ভ্যান। আমরা মোটর সাইকেল নিয়ে ছিলাম পাঁচ-সাতজন। ফেরি এপারে ঘাটের কাছে আসার পর এখানে যারা ফেরি কন্ট্রোল করে, তারা চিৎকার করছে যে, ফেরিতে পানি ঢুকছে, পানি ঢুকছে।” এদিকে প্রাণে বেঁচে যাওয়া স্বামীকে পেয়ে রীতিমতো কান্নায় ভেঙে পড়লেন স্ত্রী।

রীতিমতো সৃষ্টিকর্তাকে কৃতজ্ঞতা জানানোর ভাষা হারিয়ে ফেলেছেন তিনি। জানা গেছে, ইতিমধ্যে ডুবে যাওয়া গাড়িগুলো উদ্ধারের কাজ শুরু করেছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

আরও পড়ুন