শনিবার, ০২ Jul ২০২২, ০৬:০০ পূর্বাহ্ন

বাংলাদেশের শীর্ষ অভিনেতাদের মধ্যে অন্যতম একজন শাকিব খান। তিনি দীর্ঘ সময় ধরে একচেটিয়া ভাবে ঢাকাই সিনেমায় রাজত্ব করছেন। এমনকি দেশের ইতিহাসে তিনি সর্বোচ্চো পারিশ্রমিক গ্রহীতা অভিনেতা। সম্প্রতি তার নতুন একটি সিনেমার শুটিং সম্পন্ন হয়েছে। ঐ সিনেমা প্রসঙ্গে বেশ কিছু কথা তুলে ধরলেন এই জনপ্রিয় অভিনেতা।

প্রায় মাস খানেক ধরেই ঢাকাই ছবির শীর্ষ নায়ক শাকিব খান গ্রামে। এস এ হক অলিকের ‘গলুই’ সিনেমার জন্য কাজ করছেন বগুড়া ও জামালপুরের নদীবর্তী এলাকায়। গত ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে টানা ৩০ দিন শুটিং হয়েছে। আর এক সপ্তাহ পরই প্যাকআপ হচ্ছে লালু ওরফে শাকিব খানের কাজ।

শেষ হচ্ছে এই নায়কের ‘গলুই’ মিশন। তবে এ ক’দিনে সেখানে নিত্যদিন নতুন সব অভিজ্ঞতার সম্মুখীনও হয়েছেন তিনি। সর্বশেষ অংশ নিয়েছেন নৌকাবাইচ প্রতিযোগিতায়। আর সেটি সিনেমার কাজেই। শাকিব জানালেন, এটা তার জীবনের একেবারেই আনকোরা অভিজ্ঞতা। বিষয়টি নিয়ে বেশ রোমাঞ্চিতও তিনি। বললেন, ‘নৌকাবাইচ আমি সচক্ষে জীবনে কখনও দেখিনি।

সিনেমায় বা বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে দেখেছি। কিন্তু সামনাসামনি এটাই প্রথম। আমি খুবই রোমাঞ্চিত ছিলাম। রিয়েল নৌকাবাইচের যে ফিলটা আছে, সেটাই ছিল এখানে। মানুষ আর মানুষ। একেবারে উৎসব বসে গিয়েছিল।’শাকিবের নৌকাবাইচ নিয়ে কিছু ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসেছে। সেখানে দেখা যায়, গ্রামের বৌ-ঝিরা ছেলে-মেয়েদের নিয়ে হাজির হয়েছেন। নদীর পাড় দিয়ে বসে গেছে বাহারি দোকান।

শাকিব বলেন, ‘নৌকাবাইচ যে আমাদের গ্রামবাংলার ঐতিহ্য- এখানে এসে তা আরও একবার বুঝেছি। পুরো উৎসবমুখর পরিবেশ। এখানে সেটাই কিন্তু হয়েছে। কখনও মনে হয়নি শুটিং হচ্ছে।’ চলচ্চিত্রটিতে শাকিবের নাম লালু। পেশায় ঢুলি। নৌকা চালাতেও তার নামডাক আছে। ছবিতে তার নায়িকা পূজা চেরি।

শাকিব খান তার সিনেমার ক্যারিয়ারে এই প্রথম বারের মত সিনেমার শুটিং কর‍তে গিয়ে সম্পূর্ন নতুন বেশ কয়েকটি অভিজ্ঞতা অর্জন করেছেন। তিনি তরা পূর্বের কোন সিনেমায় এমন অভিজ্ঞতা অর্জন করেননি বলে নিজেই জানিয়েছেন। এমনকি সরকারী অনুদানে এটাও তার প্রথম অভিনীত সিনেমা। এই সিনেমাটি প্রযোজনা করছেন খোরশেদ আলম।

আরও পড়ুন