শুক্রবার, ০১ Jul ২০২২, ০৮:৩২ অপরাহ্ন

চলমান টি-২০ বিশ্বকাপে একের পর এক জয়ে যেন আকাশে উড়ছে পাকিস্তান। দলের অগ্রযাত্রায় সামনে থেকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন অধিনায়ক বাবর আজম। মাঠে দারুণ পারফরম্যান্স করলেও ভেতরে হয়তো ভালো নেই তিনি। কারণ হাসপাতালে মৃ’ত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন তার মা।

গত ২৪ অক্টোবর থেকে ভেন্টিলেটরে আছেন বাবর আজমের মা। বর্তমানে অবস্থা কিছুটা উন্নতি হলেও পুরোপুরি শঙ্কামুক্ত নন তিনি। মায়ের কাছে থাকতে ইচ্ছে হলেও দেশের প্রতি দায়িত্ববোধ থেকে খেলে যাচ্ছেন বাবর। দেশপ্রেমের এমন অনন্য নজির সবার সামনে এনেছেন তার বাবা আজম সিদ্দিকি।

ক্রিকেট বিশ্বের ‘মোস্ট আনপ্রেডিক্টেবল’ দলটাই এবারের আসরে খেলছে সবচাইতে গোছালো ক্রিকেট। প্রথম তিন ম্যাচের সবগুলো জিতে সেমিফাইনাল প্রায় নিশ্চিত করেছে তারা। পাকিস্তানের এ সাফল্যের পেছনে বড় অবদান কাপ্তান বাবর আজমের।

শাণিত মেধার অধিনায়কত্ব-তো আছেই, সঙ্গে বাবরের ব্যাটটাও হাসছে নিয়মিত। অথচ কেউ জানতোই না কতটা কষ্ট বুকে চেপে ক্রিকেটটা খেলছেন তিনি। সয়ে যাচ্ছেন কতটা অসহ্য যন্ত্রণা।

বেশ কয়েদিন ধরেই শারীরিক ভাবে অসুস্থ বাবর আজমের মা। পরে অবস্থার অবনতি হলে তাকে নিবিড় পর্যবেক্ষণ কেন্দ্রে (আইসিইউ) নেয়া হয়। বর্তমানে দেওয়া হয়েছে ভেন্টিলেটরও। ফলে প্রচণ্ড মনঃক’ষ্টে ভুগছেন এই তারকা। তবুও খেলে যাচ্ছেন একের পর এক ম্যাচ।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে বাবরের এই অবস্থা জানিয়েছেন তার বাবা আজম সিদ্দিকি। গর্বিত এই বাবা বলেন, জাতিকে কিছু সত্যি কথা বলতে চাই। টানা তিন ম্যাচের সবগুলোতে জয় অর্জন করার জন্য সবাইকে শুভেচ্ছা। কিন্তু আমাদের এর চাইতেও অনেক বড় পরীক্ষা দিতে হচ্ছে।

তিনি আরো লেখেন, ভারতের বিপক্ষে ম্যাচের দিন থেকে বাবরের মা ভেন্টিলেটরে। গেল তিন ম্যাচেই বাবর অনেক মনঃক’ষ্ট নিয়ে খেলেছে। আমি কথাগুলো বলতে চাইনি। কিন্তু পরে ভাবলাম না বললে বাবর যদি দুর্বল হয়ে যায়। তাই আমি সবাইকে জানালাম। ওর মায়ের অবস্থা এখন আগের চেয়ে ভালো।

ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ জয়ের পর গ্যালারিতে অঝোরে কেঁদেছিলেন আজম সিদ্দিকি। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছিল সেই ভিডিও। মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) নামিবিয়ার বিপক্ষে ৪র্থ ম্যাচ খেলতে নামবে পাকিস্তান। তার আগে এমন ঘটনা গোটা দলকে নিশ্চয়ই আরো অনুপ্রাণিত করবে।

আরও পড়ুন