শনিবার, ০২ Jul ২০২২, ০৫:১১ পূর্বাহ্ন

অভিনেত্রী সানাই মাহবুব এখন শোবিজ থেকে দূরে। আলোচিত-সমালোচিত এই মডেল বিনোদন জগত ছেড়ে এখন ইসলামের পথ বেছে নিয়েছেন। নিয়মিত নামাজ-রোজা পালন করা ছাড়াও বোরকা-হিজাব পরে চলাফেরা করেন তিনি।

সেই সানাই দেড় বছর হঠাৎ ফেসবুক লাইভে এসে মামলার হুমকি দিলেন। কিন্তু কেন??

সানাই মাহবুবের অভিযোগ কিছু অসাধু ফেসবুক ব্যবহারকারী তার আগের ছবি ও ভিডিও ব্যবহার করে মানুষকে বিভ্রান্ত করছে। অথচ তিনি এখন সম্পূর্ণ ইসলামের পথে আছেন। অনেক আইডি থেকে তার আগের ভিডিও পোস্ট করে বিভ্রান্তি ছড়ানো হচ্ছে অভিযোগ করে সানাই বলেন, এটা আইনের পরিপন্থী। তিনি এসবের বিরুদ্ধে আইনের আশ্রয় নিতে চান বলে উল্লেখ করেন।

লাইভে সানাই বলেন, ‘অনেক ফেসবুক গ্রুপ ও ইউটিউব চ্যানেল থেকে আমার আগের লাইভ, গানসহ নানা কিছু প্রকাশ করা হচ্ছে। মানুষকে বিভ্রান্ত করা হচ্ছে। আমি এখন ইসলামের পথে রয়েছি। এসব করা আইনের পরিপন্থী। আমার ভিডিও ব্যবহার করে, টাকা কামানোর এসব কাজ কিভাবে করতে পারেন আপনারা! তাই আমি আইনি পথে চলার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

পর্দানশীল নারী হিসেবে নিজেকে শক্তিশালী মনে করেন সানাই। তার ভাষ্য, শিগগিরই এসব চ্যানেল কিংবা গ্রুপের বিরুদ্ধে মামলা করব। একজন পর্দাশীল নারী যে কতটা পাওয়ারফুল হতে পারে তা আপনারা দেখবেন। আমি চাই আপনারা যারা এমন করছেন তারা এসব বন্ধ করুন। না হয় আমি আইনি ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হব।

উল্লেখ্য, সানাই মাহবুব নায়িকা হওয়ার জন্য শোবিজে আসেন। কয়েকটি সিনেমায় চুক্তিবদ্ধও হয়েছিলেন। কিন্তু হঠাৎ সার্জারি করিয়ে বিতর্কের তুঙ্গে চলে আসেন। ফেসবুকে অপেশাদার ভিডিও দিতেন বলে আটকও হয়েছিলেন। এরপর ক্ষমা চেয়ে ছাড়া পান। গত জুলাইয়ে তিনি শোবিজ ছেড়ে ইসলামী জীবনে ফেরার ঘোষণা দেন।

আরও পড়ুন