শুক্রবার, ০১ Jul ২০২২, ০৭:২২ অপরাহ্ন

ভোলার চরফ্যাশনের ঢালচর সংলগ্ন সাগর মোহনায় ক্যারিং জাহাজের ধাক্কায় ২১ জেলেসহ একটি মাছ ধরা ট্রলার ডুবে গেছে। রোববার রাতে ট্রলারটি ডুবার পর থেকে সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ১৩ জেলে উদ্ধার হয়েছে বলে জানা গেছে। এখনও ৮ জেলে নিখোঁজ রয়েছেন।

উদ্ধার কাজ পরিচালনার জন্য কোস্টগার্ডকে বলা হয়েছে বলে জানান উপজেলা নির্বাহী অফিসার আল নোমান।

আবদুল্লাহপুর ইউনিয়নের কামাল খন্দকারের মালিকানাধীন ডুবে যাওয়া ট্রলারটির নাম মা শামসুননাহার। উত্তাল ঢেউ আর তীব্র স্রোতের কারণে ট্রলার ও জেলেদের উদ্ধার কাজ ব্যাহত হচ্ছে বলে জানান স্থানীয় অপরপার জেলেরা।

উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মারুফ হোসেন মিনার জানান, সকাল পর্যন্ত ৮ জেলে ফিরে আসার খবর পেয়ে ছিলেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার জানান, ডুবে যাওয়া ট্রলারের জেলেরা ভেসে গিয়ে বিভিন্ন স্থানে উদ্ধার হচ্ছেন।

প্রত্যক্ষদর্শী জেলেদের বরাত দিয়ে ট্রলার মালিক কামাল খন্দকার জানান, তার মালিকানাধীন মাছ ধরার ট্রলারটি ২১ জন মাঝি মাল্লা নিয়ে মেঘনায় মাছ শিকারে যান। রোববার রাতে ঢালচরের চরের নিজামের দক্ষিণে মেঘনায় অবস্থানকালে বিপরীত দিক থেকে আসা একটি ক্যারিং জাহাজ মাছ ধরা ট্রলারটিকে ধাক্কা দেয়। এতে মুহূর্তের মধ্যে ট্রলারে থাকা ২১ জন জেলেসহ ট্রলারটি উত্তাল মোহনায় ডুবে যায়। নিকটবর্তী অপর ট্রলারের জেলেরা নিমজ্জিত ট্রলার ও জেলেদের উদ্ধারের চেষ্টা করে যাচ্ছে।

জেলেদের মধ্যে ট্রলারের মাঝি মো. বাচ্চু, আল আমিন, ফারুক, জাবেদ, খালেক, হাফেজ, ইউসুব, জসিম, রফিক ও মাসুদের নাম জানা যায়।

চরফ্যাশন উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মারুফ হোসেন মিনার জানান, ট্রলারডুবির ঘটনার খবর পেয়ে উদ্ধার অভিযানের জন্য কোস্টগার্ডকে অবগত করা হয়েছে।

চর মানিকা জোনের কোস্টগার্ড কন্টিনজেন্ট কমান্ডার হারুন অর রশিদ জানান, মেঘনায় ট্রলার ডুবি ঘটনার খবর পেয়েছি। দুর্ঘটনাস্থলের অবস্থান নিশ্চিত করা হয়েছে। বৈরী প্রকৃতির জন্য উদ্ধার অভিযান ব্যাহত হচ্ছে।

আরও পড়ুন