বুধবার, ২৯ Jun ২০২২, ০৭:১০ অপরাহ্ন

আন্তঃনগর ট্রেন জয়ন্তিকার ১৫টি বগি নিয়ে ঢাকার কমলাপুর রেল স্টেশন থেকে সিলেট যাওয়ার কথা। ট্রেনটির যাত্রা শুরুর সময় ছিল সোমবার (১৩ ডিসেম্বর) বেলা সোয়া ১১টা। নির্ধারিত সময়ে ট্রেন ছাড়ার প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু কিছু যাত্রী বগি খুঁজে পাচ্ছিলেন না। পরে তারা বিষয়টি কমলাপুর রেল স্টেশন মাস্টারসহ সংশ্লিষ্টদের জানান।

অভিযোগ পেয়ে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ খোঁজ নিয়ে জানতে পারে, আলাদা একটি বগি ট্রেনে যুক্ত করা হয়নি। সঙ্গে সঙ্গে বগি যুক্ত করার প্রক্রিয়া শুরু হয়। তাতেও লেগে যায় এক ঘণ্টার বেশি সময়। এ কারণে ট্রেনটির যাত্রা বিলম্ব হয়।

এ নিয়ে ক্ষুব্ধ হন যাত্রীরা। সিলেটে যেতে সোমবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে কাউন্টার থেকে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত বগিতে দুটি টিকিট কেনেন মো. হাবিবুর রহমান। সেটি ছিল এক্সট্রা বগি-১ এ। তিনি তার মামাকে নিয়ে রেলস্টেশনে উপস্থিত হয়ে আধা ঘণ্টার বেশি সময় ধরে খুঁজেও নির্দিষ্ট বগি পাননি।

হাবিবুর রহমান জানান, পরে তিনি ও তার সঙ্গে থাকা আরও কয়েকজন যাত্রী কমলাপুর রেল স্টেশনের শীর্ষ কর্মকর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তারা জানান, টিকিট বিক্রি করা হলেও তাদের পরিবহনের জন্য ট্রেনের বগি সংযোজন করা হয়নি। তখন সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা তৎপর হয়ে ওঠেন। সঙ্গে সঙ্গে ট্রেনে বগি লাগানোর জন্য উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে কমলাপুর রেল স্টেশনের ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ মাসুদ সারওয়ার দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে বলেন, আমরা দ্রুত বগি সংযোজন করেছি।

১০-১৫ মিনিটের মধ্যে জয়ন্তিকা আন্তঃনগর ট্রেন সিলেটের উদ্দেশে ছেড়ে যাবে। শান্টিংয়ের জন্য ট্রেন ছাড়তে একটু দেরি হচ্ছে বলে তিনি জানান।

আরও পড়ুন