সোমবার, ০৪ Jul ২০২২, ১২:৫৮ অপরাহ্ন

এই তো চার বছর আগের কথা। বিপিএলের এক ম্যাচে রংপুর রাইডার্সের অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার দিকে তেড়ে আসেন চিটাগং ভাইকিংসের পেসার শুভাশীষ রায়। সরাসরি টিভিতে সম্প্রচার হওয়া ম্যাচের কারণে গোটা বাংলাদেশই দেখেছে পুরো ঘটনা। অভিযোগ উঠেছিল, সনাতন ধর্মালম্বী বলে শুভাশীষের ওপর মাশরাফি আক্রমণাত্মক হয়েছেন, গালি দিয়েছেন।

ম্যাচের পরদিন সাংবাদিকদের সঙ্গে আড্ডায় বাংলাদেশের সবচেয়ে সফল অধিনায়ক বলছিলেন, ‘ভাই দেখেন, আমি নাকি শুভাশীষ রে হিন্দু বলে গালি দিছি। এরা জানেই না আমার বন্ধু হলো সব মুচি, মেথর, নাপিত। নড়াইলে আমার কত বন্ধুই হিন্দু।’

বাস্তবতাও সেই সাক্ষ্যই দেয়। নড়াইলের মুচি রবি দাস, পরিচ্ছন্নতাকর্মী সুমন দাস মাশরাফির বন্ধু। তারকা খ্যাতি পেলেও ছোটবেলার বন্ধুদের ভুলে যাননি তিনি। ক্রিকেটার হওয়ার পর থেকে নিজ এলাকায় পা রাখলে নড়াইল শহরের মোড়ে বটগাছের নিচে বসে জুতা সেলাই করা তথা মুচি রবি দাসের দোকানে নিত্য হাজিরা দিতেন মাশরাফি।

চিত্রটা বদলায়নি মাশরাফি সংসদ সদস্য হওয়ার পরও। এখনও রবি দাসের দোকানে এসে সময় কাটান নড়াইল এক্সপ্রেস। সম্প্রতি আবারও নিজ নির্বাচনী এলাকায় যান মাশরাফি। শনিবার, ১৮ ডিসেম্বর, ফেসবুকে ভাইরাল হয়েছে তার এলাকা পরিদর্শনের ছবি ও ভিডিও। হাসপাতালে ঢুঁ মেরেছেন, পুলিশের আর্চারি প্রতিযোগিতায় হাজির হয়েছিলেন। এলাকার সংসদ সদস্য হিসেবে আরও অনেক কার্যক্রম ছিল।

তবে যত কিছুই থাক, ভুল হয়নি বন্ধু রবি দাসের দোকানে হাজিরা দেয়ার বিষয়টি। বটগাছের নিচে জুতা সেলাই করছেন রবি, চার পাশে ছড়ানো পুরনো, ছেঁড়া জুতা। তার পাশেই বসে বন্ধুর সঙ্গে গল্পে মত্ত বাংলাদেশের এক সংসদ সদস্য।এমন দৃ্শ্য বাংলাদেশের ইতিহাসে একেবারে বিরল না হলেও খুবই কম। ক্রিকেট দলের পর এখন নড়াইলের গণমানুষের নেতা, অধিনায়ক বনে গেছেন মাশরাফি।

তার মতো করে জনগণের এতটা পাশে এসে দাঁড়ানো, নিজ দায়িত্বে সরজমিন এসে সুযোগ-সুবিধার খোঁজ-খবর নেয়ার মতো সাংসদ বাংলাদেশে কমই দেখা যায়।তাই তো রবি দাস, সুমন দাসদের সঙ্গে এখনও ভেদাভেদ নাই মাশরাফির। আগের মতোই মাটির মানুষ, বন্ধুত্বের প্রশ্নেও জাত-কূলের ধার ধারেন না তিনি। কারণ সবার আগে মানবতা, তার ওপর রয়েছে বাল্যকালের বন্ধুত্ব। এ যেন ভোলার নয়।

আরও পড়ুন