বুধবার, ২৯ Jun ২০২২, ০৬:৩৬ অপরাহ্ন

এখন থেকে উন্নত দেশে চিকিৎসা দিতে কিংবা মেডিক্যালে পড়তে গেলে অ্যাক্রেডিটেশন কাউন্সিলের অনুমোদন লাগবে— এমন বিধান রেখে ‘বাংলাদেশ চিকিৎসা শিক্ষা অ্যাক্রডিটেশন আইন-২০২১’ খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

রবিবার (১৯ ডিসেম্বর) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে মন্ত্রিসভার বৈঠকে এই অনুমোদন দেওয়া হয়। প্রধানমন্ত্রী তার বাসভবন গণভবন থেকে সচিবালয়ের মন্ত্রিপরিষদ বিভাগে মন্ত্রীদের এই বৈঠকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হন।

বৈঠক শেষে সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম প্রেস ব্রিফিংয়ে এই আইনের খসড়া অনুমোদনের কথা জানান।তিনি বলেন, বিশ্বের সাথে তাল মিলিয়ে বাংলাদেশের মেডিক্যাল শিক্ষা এবং চিকিৎসার মান উন্নয়নে এই আইনের খসড়ায় নীতিগত অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এখন থেকে এটার অনুমোদন ছাড়া কেউ বিদেশে

পড়তে এবং চিকিৎসা সেবা দিতে যেতে পারবেন না। এ ছাড়াও মন্ত্রিসভা বৈঠকে মালদ্বীপের কারাগারে থাকা ৪৩ জন দণ্ডপ্রাপ্ত বাংলাদেশি নাগরিককে দেশে ফিরিয়ে আনতে একটি চুক্তির খসড়া অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ সচিব জানান, মালদ্বীপে বিভিন্ন মামলায় বাংলাদেশের ৪৩ জন সাজাপ্রাপ্ত এবং ৪০ জন বিচারাধীন আছেন। এ

ধরনের বন্দী এবং সাজাপ্রাপ্ত যারা আছেন তাদের দেশে ফিরিয়ে আনা এবং মালদ্বীপের যারা এমন বাংলাদেশে আছেন তাদের ফেরত পাঠাতে মালদ্বীপের সাথে বন্দী বিনিময় চুক্তি করতে যাচ্ছে সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আগামী ২২ ডিসেম্বর মালদ্বীপ সফরে গেলে এই চুক্তি স্বাক্ষর হবে।

আরও পড়ুন