বৃহস্পতিবার, ০৭ Jul ২০২২, ০২:৩৪ অপরাহ্ন

বরগুনায় স্কুল থেকে দেয়া উচ্চ শক্তিসম্পন্ন বিস্কুট খাওয়ার সময় গলায় আ’টকে এক শিশুর মৃ’ত্যু হয়েছে। ওই শিশু তালতলীর কড়ইতলা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের তৃতীয় শ্রেনীর ছাত্র।সেমবার (২০ ডিসেম্বর) বেলা এগারোটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। শিশু জুনায়েদ (০১) তালতলীর হাড়িপাড়া গ্রামের জলিল হাওলাদারের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, গত ১৩ ডিসেম্বর জুনায়েদের বড় ভাই জাকারিয়াকে স্কুল থেকে উচ্চ পুষ্টিগুণ সমৃদ্ধ বিস্কুট দেয়। আজ সকালে জাকারিয়ার মা তাকে ও তার ছোটভাই জুনায়েতকে স্কুল থেকে পাওয়া ওই বিস্কুট খেতে দেয়। ওই বিস্কুট খাওয়ার সাথে সাথে শিশু জুনায়েত অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। স্থানীয়দের সহযোগিতায় জুনায়েদকে উদ্ধার করে আমতলী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায় স্বজনরা। এরপর হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডাঃ সাদিয়া আফরিন রাখি শিশুটিকে মৃ’ত ঘোষণা করেন।

আব্দুল মজিদ, হাসান, মোশারফসহ কয়েকজন প্রতিবেশী বলেন, বিস্কুট গলায় আটকে শিশুটির শ্বাসপ্রশ্বাস বন্ধ হয়ে যায়। শিশুটির মা কান্নাকাটি শুরু করলে আমরা গিয়ে জুনায়েদকে উদ্ধার করে আমতলী হাসপাতালে নিয়ে যাই।ওই হাসপাতালের চিকিৎসক শিশুটিকে মৃ’ত বলে ঘোষণা করে।

কড়াইতলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বিউটি বেগম বলেন, জাকারিয়াকে বিস্কুট দেয়া হয়েছিলো স্কুল থেকে। তবে নিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা থেকে স্বীকৃত এসব বিস্কুট ৫ বছরের নিচের শিশুদের খাওয়ানোর ব্যাপারে নি’ষেধ রয়েছে।

তালতলী থা’নার অফিসার ইনচার্জ কাজী শাখাওয়াত হোসেন তপু বলেন, বিষয়টি আমার জানা নেই। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে পরবর্তী আইনি ব্যাবস্থা নেয়া হবে।

আরও পড়ুন