শুক্রবার, ০১ Jul ২০২২, ০৮:১৩ অপরাহ্ন

আটক হওয়ার পর পুলিশকে ধাক্কা দিয়ে হাতকড়াসহ দৌড়ে পালান চুরির মামলায় অভিযুক্ত আসামি। এ সময় উজ্জ্বল হোসেন নামের এক পুলিশ সদস্যের হাতের আঙুলের নখ উপড়ে গিয়ে জখম হয়।

শনিবার (৮ জানুয়ারি) রাতে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার সালন্দর ইউনিয়নের শিংপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

পরে গ্রামবাসীর সহায়তায় তাকে আটক করে থানায় নিয়ে যান পুলিশ। আটক আসামির নাম আমজাদ বাবু (৩৫)। সে ওই গ্রামের মৃত তৈয়ব আলীর ছেলে।

ঠাকুরগাঁও সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তানভিরুল ইসলাম বলেন, ১৩ ডিসেম্বর রাতে সদর থানার গড়েয়া ইউনিয়নে আরাজী মাটিগাড়া গ্রামের অনিল চন্দ্র অধিকারীর বাসায় চুরি হয়। এ ঘটনায় তিনি সদর থানায় অভিযোগ করেন। অভিযোগে তিনি আমজাদ বাবুর নাম সন্দেহভাজন হিসেবে উল্লেখ করেন।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ৮ জানুয়ারি বাবুর অবস্থান জানতে পেরে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তাকে ধরে আনার সময় সে পুলিশকে ধাক্কা দিয়ে জখম করে পালানোর চেষ্টা করে। পরে পুলিশ সদস্যরা গ্রামবাসীর সহায়তায় তাকে ধরে থানায় নিয়ে আসে এবং সেই অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে মামলা করা হয়।

আমজাদ বাবুর কাছ থেকে চুরি হওয়া মালামাল উদ্ধার করা হয়েছে। আজ তাকে আদালতে পাঠানো হবে বলেও জানান তিনি।

অভিযোগকারী অনিল চন্দ্র অধিকারী বলেন, চাকরির সুবাদে আমার ছেলে ঢাকায় থাকে। বাসায় আমার পুত্রবধূর ঘরে যে রাতে চুরি হয়। সে সময় শব্দ পেয়ে পুত্রবধূ ঘরের আলো জ্বালানোর পর তিনজনকে পালাতে দেখে।

এ সময় তাদের মধ্যে থেকে একজন আমজাদ বাবুর নাম ধরে ডাকে। আমি তাকে সন্দেহ করি। কারণ এর আগেও সে চুরির ঘটনায় বারবার অভিযুক্ত হয়েছে।

আরও পড়ুন