রবিবার, ০৩ Jul ২০২২, ০২:৫১ অপরাহ্ন

স্থানীয় রীতি অনুসারে বিয়ের একদিন আগেই ছিল রিসেপশন বা খাওয়া-দাওয়া, নাচ-গানের অনুষ্ঠান। সেই অনুষ্ঠানে ডিজের তালে নাচে মাতেন তরুণী হবু বধূ। সেটি একেবারেরই পছন্দ হয়নি হবু বরের। অভিযোগ, আমন্ত্রিত অতিথিদের সামনে তরুণীকে চড় মারেন বর। তবে এরপরই চমকে দেওয়া সিদ্ধান্ত নেন তরুণী। ওই তরুণের বদলে কাজিনের গলায় মালা দেন তিনি।

ঘটনাটি ঘটেছে ভারতের তামিলনাড়ুতে। তরুণীর বাড়ি কুড্ডালোর জেলার পানরুতিতে। অভিযুক্ত তরুণের বাড়ি একই জেলার পেরিয়াকাট্টুপালায়মে। গেল বছর ৬ নভেম্বরে সম্পূর্ণ হয়েছিল উভয়ের বাগদান পর্ব। বিয়ে ছিল গত ২০ জানুয়ারিতে। তার আগের দিনে স্থানীয় প্রথা অনুসারে ছিল বিয়ের খাওয়া-দাওয়া তথা আনন্দ অনুষ্ঠান। সেখানেই বাধে গোল।

তরুণী ডিজের তালে নাচ করছিলেন অন্য আত্মীয়-বন্ধুদের সঙ্গে। এর মধ্যেই মেয়েপক্ষের এক আত্মীয় তরুণ বর-বধূর হাত ধরে নাচা শুরু করে; যা একেবারেই পছন্দ হয়নি বরের। সে ওই পুরুষটিকে এবং নিজের হবু বধূর থেকে হাত ছাড়িয়ে নেয়। এরপর সে দুজনকেই ধাক্কা মারে বলেও অভিযোগ।

মেয়েপক্ষের অভিযোগ, এরপর অনুষ্ঠান ভরতি লোকের সামনে নিজর হবু বউকে চড় মারে তরুণ। যদিও দ্রুত কড়া সিদ্ধান্ত নেয় তরুণী। ওই মুহূর্তে তার পরিবারকে সে জানিয়ে দেয়, এই ছেলেকে সে বিয়ে করবে না। যা মেনেও নেয় মেয়ের বাড়ির লোক। এরপর পরিবারের সদস্য এক কাজিনকে বিয়ে করে ওই তরুণী।

এদিকে পানরুতির মহিলা পরিচালিত থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন প্রত্যাখ্যাত তরুণ। সে জানিয়েছে, হবু বউকে সে প্রশ্ন করেছিল, কেন অন্যদের সঙ্গে নাচ করছে, তাতে তরুণী উত্তর দেয়, তার ইচ্ছে। মেয়ের পরিবার তাকে হেনস্তা করেছে ও হুমকি দিয়েছে বলেও অভিযোগ তরুণের।

যদিও তরুণী সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, তার পরিবার বিয়ের অনুষ্ঠানের জন্য ৭ লক্ষ টাকা খরচ করেছে। সেই টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে ছেলের পরিবারকে।

সূত্র: সংবাদ প্রতিদিন

আরও পড়ুন