বৃহস্পতিবার, ০৭ Jul ২০২২, ০২:৩৭ অপরাহ্ন

সুপারি চাষি তার বন্ধুর সঙ্গে গাড়ি দেখতে এসেছিলেন ভারতের কর্নাটকের একটি মাহিন্দ্রা শোরুমে। সাধারণ বেশভূষা দেখে প্রচণ্ড অপমান করেন বিক্রয়কর্মী। কর্নাটকের মাহিন্দ্রা শো-রুমের এমন ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ভাইরাল হয়। জানা গেছে, ওই ব্যক্তির নাম কেম্পেগৌড়া । পেশায় সুপারি চাষী ওই ব্যক্তি বন্ধুর সঙ্গে গাড়ি দেখতে এসেছিলেন মাহিন্দ্রা শোরুমে।

কেম্পেগৌড়ার অভিযোগ, সাধারণ বেশভূষা দেখে তীব্র কটাক্ষ করেন সেলসম্যান। সেই সময়ই রেকর্ড হওয়া ভিডিও নেটপাড়ায় ছড়িয়ে পড়তেই সেলসম্যানের ব্যবহারে তীব্র ক্ষোভে ফেটে পড়েন নেটিজেনরা। কেম্পেগৌড়ার অভিযোগ, সেলসম্যান তাঁর পোশাক-পরিচ্ছদ নিয়ে টিপ্পনির সঙ্গে সঙ্গে তার আর্থিক অবস্থা না জেনেও তীব্র কটাক্ষ করেন।

কেম্পেগৌড়া এদিন একটি মাহিন্দ্রা বোলেরো পিকআপ গাড়িটি কেনার জন্য তার বন্ধুকে নিয়ে খোঁজখবর নিতে এসেছিলেন।

শোরুমে ঢোকার মুখেই সেলসম্যান তাদের তাচ্ছিল্যের সঙ্গে কিছু অপমানজনক কথা বলে। গাড়ির সম্বন্ধে জানতে চাইলে কটূক্তি ভেসে আসে, পকেটে ১০ টাকা আছে? ১০ টাকার গাড়ি এখানে পাওয়া যায় না।

তিনি সেলসম্যান বলেন, ১০ টাকা নয় ১০ লাখ টাকার গাড়ি কেনার ক্ষমতা আছে তাঁর। একইসঙ্গে সেলসম্যানের দিকে চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে কেম্পেগৌড়া বলেন, তিনি যদি ১০ লাখ টাকা নিয়ে আসেন তাহলে ওই সেলসম্যানকে তৎক্ষণাৎ গাড়িটি ডেলিভারি দিতে হবে। যেমন বলা তেমন কাজ। অপমানের প্রতিশোধ নিতে আধঘণ্টার মধ্যে নগদ ১০ লাখ টাকা নিয়ে ওই শোরুমে আবার আসেন কেম্পেগৌড়া।

চ্যালেঞ্জের শর্ত মতো তিনি ১০ লাখ টাকা দিলেও সেলসম্যান তৎণক্ষণাৎ গাড়ি ডেলিভারি দিতে সক্ষম হননি। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন কেম্পেগৌড়া। সূত্র-এই সময়।

আরও পড়ুন