বৃহস্পতিবার, ৩০ Jun ২০২২, ১০:৪০ অপরাহ্ন

তথ্যপ্রযুক্তির এ সময়ে স্মার্টফোন নিত্যপ্রয়োজনীয় অনুষঙ্গ হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রায়ই দেখা যায়, অভিভাবকরা বাচ্চাকে শান্ত রাখার জন্য তার হাতে স্মার্টফোন বা ট্যাব দেন। গান, কার্টুন বা মজার ভিডিও চালিয়ে দিয়ে তাকে শান্ত রাখা হয়। আবার স্কুল-কলেজসহ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অনলাইন ক্লাসের কারণে বাধ্য হয়েই শিশুর হাতে তুলে দিচ্ছেন স্মার্টফোন।

মোবাইল ফোন নিয়ে খেলছিল ২২ মাসের এক শিশু। এরপরই প্রায় দেড় লাখ টাকার ফার্নিচার কিনে ফেলে ওই শিশু। এ ঘটনা ঘটেছে যুক্তরাষ্ট্রের নিউজার্সিতে।

মালয় মেইলের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, মায়ের মোবাইল ফোন নিয়ে খেলছিল আয়ানশ কুমার নামের ওই শিশু। এরপর ওয়ালমার্ট থেকে ১ হাজার ৭০০ ডলার বা প্রায় ১ লাখ ৪৬ হাজার টাকা দিয়ে ফার্নিচার কিনে ফেলে আয়ানশ।

আয়ানশের বাবা প্রমোদ বলেন, সে কার্টে গিয়ে সেখানে যা ছিল, সব কিছু অর্ডার করে দেয়। টাকাও পরিশোধ করে দেয় সে।

স্থানীয় টিভি স্টেশন নিউজ12 জানিয়েছে, কিছুদিন আগেই নতুন বাসায় উঠেছে এই পরিবার। শিশুটির মা মধু অনলাইনে কেনাকাটা করতে অনেকটা সময় পার করেছেন। তার মোবাইল ফোনে তার পেমেন্টের সব তথ্যই জমা ছিল।

কিছু জিনিস পছন্দ করে কার্টে রাখেন তিনি। কিন্তু সেগুলোই তিনি কিনবেন কিনা তা চূড়ান্ত করেননি মধু। তবে এর আগেই তার ছেলে সব কিছু কিনে ফেলে। চোখের পলকেই এক হাজার ৭০০ ডলার খরচ করে ফেলে সে।

প্রমোদ বলেন, আমরা আয়ানশের হাতে মোবাইল ফোন দেখি। কিন্তু ততক্ষণে অনেক দেরি হয়ে যায়। আমরা অর্ডার বাতিল করতে চেয়েও ব্যর্থ হই। আয়ানশের করা অর্ডার এখনও এই দম্পতির বাসায় আসছে।

আরও পড়ুন