বৃহস্পতিবার, ০৭ Jul ২০২২, ১২:৩৮ অপরাহ্ন

ক্যারিয়ারের বিতর্কিত সময়েই রূপালি জগত থেকে হারিয়ে যান অভিনেত্রী ময়ূরী। প্রথমসারির চিত্রনায়িকার মর্যাদা না পেলেও একসময়ের পর্দা কাঁপানো এই চিত্রনায়িকার দেখাও মেলে মাঝে মধ্যে। এই যেমন চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নির্বাচনের ভোটগ্রহণের দিন এফডিসিতে দেখা গেল ময়ূরীকে। এসেছিলেন ভোট দিতে।

হঠাৎ করে সিনেমা ছেড়ে দেওয়ার রহস্য কী? জানতে চাইলে সাংবাদিকদের ময়ূরী জানান, ‘আমাকে পলিটিক্স করে বের করে দেওয়া হয়েছে। নায়িকারা আমার নামে দুর্নাম ছড়াত। আমাকে অশ্লীল নায়িকা বলে প্রচার করা হতো। এখন টুকটাক স্টেজ শো করি। তার পরেও আমি এখন ভালো আছি, আমার ফ্ল্যাট আছে, গাড়ি আছে।’

ময়ূরী বলেন, ‘আর সিনেমা করব না। বিয়ের পরই আমি সেই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমার এখন দুই সন্তান, তাদের নিয়েই ব্যস্ত থাকি। সবার আমাদের জন্য দোয়া করবেন।’

ঢালিউডে নব্বই দশকের শেষের দিকে আগমন চিত্রনায়িকা ময়ূরীর। তখন সিনেমার সবচেয়ে চাহিদাসম্পন্ন চিত্রনায়িকা ছিলেন তিনি। ১৯৯৮ সালে ‘মৃত্যুর মুখে’ সিনেমার মাধ্যমে চলচ্চিত্রে পা রাখেন ময়ূরী। এ পর্যন্ত তার অভিনীত তিনশ’ সিনেমা মুক্তি পেয়েছে। নার্গিস আক্তার পরিচালিত ‘চার সতীনের ঘর’ শিরোনামের সিনেমায় অভিনয় করে প্রশংসা কুড়ান ময়ূরী। তার অভিনীত সবশেষ মুক্তিপ্রাপ্ত সিনেমা ‘বাংলা ভাই’।

গেল বছর সংবাদমাধ্যমে তাকে ‘অ’শ্লীল সিনেমার নায়িকা’ বলায় ব্যথিত হন এ অভিনেত্রী । বিষয়টি উল্লেখ করে অঝোরে কাঁদেন।

দাবি করেন-‘তিনি কোনো অ’শ্লীলতা করেননি। আর যদি করেও থাকেন তাহলে তার বিপরীতের নায়করাও অ’শ্লীল।’ সিনেমা ছেড়ে বর্তমানে পরিবার পরিজন নিয়ে টঙ্গীতে নিজ বাড়িতে বসবাস করছেন এই নায়িকা।

আরও পড়ুন