রবিবার, ০৩ Jul ২০২২, ০৩:০১ অপরাহ্ন

অবশেষে বাংলাদেশ শিল্পী সমিতির নির্বাচনে তৃতীয়বারের মতো সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন জায়েদ খান। জয়ের পর আজ শনিবার ২৯ জানুয়ারি সন্ধ্যায় এফডিসিতে এসে তিনি বললেন, ‘আমি জয়ী হলেও জয় উদযাপন করতে পারছি না। আমার সভাপতি মিশা সওদাগর ভাই পরাজিত হয়েছেন। উনার জন্য আমার মন খারাপ। কারণ আমরা বিগত চার বছর স্বামী- স্ত্রীর মতো ছিলাম।’

এর আগে গতকাল এফডিসিতে অনুষ্ঠিত হয় শিল্পী সমিতির ১৭ তম নির্বাচন। ২০২২-২৪ মেয়াদি এই নির্বাচনে একুশে পদকপ্রাপ্ত অভিনেতা ইলিয়া কাঞ্চনের কাছে ৫৩ ভোটে পরাজিত হয়েছেন মিশা সওদাগর।

অন্যদিকে সাধারণ সম্পাদক পদে নিপুনের বিপক্ষে জিতেছেন জায়েদ খান। কিন্তু জয়ী হলেও মন খারাপ তার। সেটা তার প্যানেলের সভাপতি মিশা সওদাগরের জন্যই। জায়েদ খান বলেন, ‘মিশা সওদাগরের সঙ্গে আমার চার বছরের যাত্রা। এই চার বছর মিশা ভাই আর আমি স্বামী স্ত্রীর মতো ছিলাম। আমার আর তার মধ্য দারুন বোঝাপড়া। আমরা একে অপরের কাজের পালসটা বুঝতে পারি। তার জন্য খুবই মন খারাপ আমার।’

এদিকে বেশ কিছু ভোট বাতিল হওয়ায় পরাজিত প্রার্থী নিপুন আবার ভোট গণনার জন্য আপীল করেছেন। সেই সঙ্গে দাবি করেছেন, প্রশাসন ভোটে অসহযোগিতামূলক আচরণ করেছে।

এ সময় জায়েদ খান বলেন, ‘ভোটের পর পরাজিত হলে এমন অনেক কথাই উঠে। এগুলো নিয়ে আমি ভাবছিনা। নিয়ম অনুযায়ী এগুলো সুরাহা হবে। তবে গতকাল খুব সুষ্ঠুভাবে ভোট হয়েছে। ভোটের পরিবেশ নিয়ে সব শিল্পীই সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন।’

এর আগে আজ শনিবার ২৯ জানুয়ারি ভোর ৫টা ৪০ মিনিটে গণমাধ্যমকর্মী ও পদপ্রার্থীদের সামনে নির্বাচনের ফল ঘোষণা শুরু করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার পীরজাদা হারুন। তিনি জানান, ভোট বাতিল হয়েছে ১০টি।

আরও পড়ুন