রবিবার, ০৩ Jul ২০২২, ০২:৩৭ অপরাহ্ন

এক বা দুই নয়, আটজন স্ত্রীকে নিয়েই দিব্যি সুখে-শান্তিতে এক বাড়িতে সংসার করছেন এক যুবক। ওই যুবকের নাম অং ডাম সরোট। তিনি থাইল্যান্ডের একজন ট্যাটু শিল্পী। বিয়ে করেই নিজের নাম দেশ থেকে ছড়িয়েছেন সারা বিশ্বে। এ খবর প্রকাশ করেছে পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম জিও নিউজ, ভারতীয় সংবাদমাধ্যম নিউজ ১৮-সহ বেশ কিছু গণমাধ্যম।

ওই যুবকের দাবি, আট স্ত্রীকে নিয়ে সুখে সংসার করছেন তিনি। এমনকি স্ত্রীদের পরস্পরের মধ্যে কোনো অশান্তিও হয় না বলেও জানিয়েছেন তিনি। আটজন স্ত্রীই তাঁকে খুব ভালোবাসেন। যত্ন নেন। নিজেকে ভাগ্যবান বলেই দাবি সোরোটের। প্রত্যেক স্ত্রীর সঙ্গেই প্রথম দেখায় প্রেমে পড়েন সোরোট। পরে বিয়েও করেন তাঁদের। প্রথম স্ত্রী নাং স্প্রাইটের সঙ্গে এক বন্ধুর বিয়েতে আলাপ হয়। প্রথম দেখাতেই প্রেমে পড়েন। তারপর বিয়েও করেন তাঁকে। দ্বিতীয় স্ত্রী নাং এলকে দেখেছিলেন বাজার করতে গিয়ে। তৃতীয় স্ত্রী নাং নেনের সঙ্গে আলাপ হয় হাসপাতালে। চতুর্থ, পঞ্চম ও ষষ্ঠ স্ত্রীর সঙ্গে সোরোটের আলাপ হয় ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম এবং টি

স্থানীয় গণমাধ্যমে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সোরোট জানিয়েছেন, তাঁর প্রথম স্ত্রীর এক সন্তান রয়েছে। আর দুই স্ত্রী এখন অন্তঃসত্ত্বা। সোরোট বলেন, ‘সব স্ত্রীকে সৎ থাকতে বলেছি। যদি তাদের কারও পছন্দ হয়, আমাকে এসে বলতে বলেছি। এমনটি জানতে পারলে আমি তাদের তিনবার জিজ্ঞেস করব। যদি তারা হ্যাঁ বলে, তাহলে তারা আলাদা হতে পারে।’

সোরোটের এমন জীবনযাপনে প্রশ্ন উঠতে পারে তাঁর বিপুল বিত্তবৈভব নিয়ে। তবে সোরোট খুব বেশি ধনী নন। তিনি একজন ট্যাটুশিল্পী এবং স্ত্রীরা প্রত্যেকেই কিছু না কিছু করেন, ফলে সংসার চালাতে নাকি কোনো সমস্যা হয় না

আরও পড়ুন